জাফর ইকবালকে হামলাকারীর বয়স ২৪-২৫ এর মধ্যে

সুরমা টাইমস ডেস্কঃ বিশিষ্ট লেখক ও শিক্ষাবিদ এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারীর বয়স আনুমানিক ২৪ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। তাকে শাবি ক্যাম্পাসে পুলিশ হেফাজতে আটক রাখা হয়েছে। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের জালালাবাদ জোনের পুলিশ কর্মকর্তাদের সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের জালালাবাদ জোনের সহকারি কমিশনার মুনাদির ইসলাম চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, ড. জাফর ইকবালের মাথায় ছুরিকাঘাতকারী তরুণকে আটক করা হয়েছে। হামলার ঘটনার পরপরই তাকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ও উপস্থিত শিক্ষার্থীরা ধরে ফেলে। উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা তাকে ধরার পর মারধর করেছে। হামলাকারী আহত হয়ে অজ্ঞান অবস্থান আছে। তার বয়স আনুমানিক ২০-২৫। তবে এখনও তার পরিচয় জানা যায়নি।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, হামলাকারীকে শাবি ক্যাম্পাসেই পুলিশ হেফাজতে আটক রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার (৩ মার্চ) বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠান চলাকালে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে মাথায় ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। এরপর তাকে সিলেটের ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জহির উদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে সিলেটের ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি সহযোগী অধ্যাপক ডাক্তার রাশেদুন্নবীর অধীনে চিকিৎসাধীন আছেন।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার এলাকায় গতকাল শুক্রবার ইলেকট্রিক ও ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠান চলছিল। গতকাল বিভাগীয় সভাপতি হিসেবে এর উদ্বোধন করেছিলেন ড. জাফর ইকবাল। আজ শনিবার বিকালে এর সমাপনী অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চ এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন ‘এ’-এর সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ-মিছিল করছেন ইলেকট্রিক ও ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

Sharing is caring!

Loading...
Open