ফরেনসিক রিপোর্ট: হার্ট অ্যাটাক নয়, শ্রীদেবীর মৃত্যু পানিতে ডুবে

শ্রীদেবীর অকাল মৃত্যুর পর শোকে স্তব্ধ ভারতসহ পুরো উপমহাদেশ। তবে এই শোকের ফাঁকেও প্রশ্ন উঠেছিল এই কিংবদন্তির মৃত্যুর যৌক্তিক কারণ নিয়ে। ২৫ ফেব্রুয়ারি সারাদিন জানা গেছে, হার্ট অ্যাটাক করে বাথরুমে পড়ে গিয়ে মৃত্যু ঘটে শ্রীদেবীর।

তবে ২৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল নাগাদ সেই খবরে নতুন মোড় নেয়। শ্রীদেবীর ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণ হিসেবে হার্ট অ্যাটাকের বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলা নেই। সেখানে উল্লেখ রয়েছে, দুর্ঘটনাবশত পানিভর্তি বাথটাবে পড়ে দম বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে!
শুধু তাই নয়, সেখানকার ফরেনসিক রিপোর্টের বরাত দিয়ে দুবাইয়ের খালিজ টাইমস জানায়, শ্রীদেবীর রক্তে অ্যালকোহলের উপস্থিতিও পাওয়া গেছে!

এদিকে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো থেকে জানা গেছে, সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর ১টা নাগাদ দুবাইয়ে কর্মরত ভারতীয় দূতাবাসের এক কর্মী এবং কাপুর পরিবারের আত্মীয় সৌরভ মালহোত্রাকে ডেকে পাঠানো হয় দুবাইর মর্গে। কিছুক্ষণের মধ্যেই তারা বেরিয়ে আসেন। দুপুর ২টা নাগাদ আবার তাদের দেখা করতে বলা হয়। এরপর জানানো হয়, ঘণ্টা দুয়েকের মধ্যে শ্রীদেবীর ডেথ সার্টিফিকেট ইস্যু করা হবে।
উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে দুবাইয়ের জুমেইরাহ এমিরেটস টাওয়ার থেকে শ্রীদেবীর অচেতন দেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছিল স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকেরা জানান, অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরেও তার ডেথ সার্টিফিকেট না পাওয়ায় প্রশ্ন উঠেছিল গতকাল দিনভর। কারণ, সেখানকার ফরেনসিক বিভাগ শ্রীদেবীর মৃত্যুর কারণ নিয়ে নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ডেথ সার্টিফিকেট না দেওয়ার কথা জানায়।

এদিকে দুবাই থেকে কখন শ্রীদেবীর মরদেহ মুম্বাই পৌঁছাবে সে বিষয়েও এখনও কেউ স্পষ্ট নন। ভারতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, দুবাইয়ের স্থানীয় সময় বিকাল ৪টা নাগাদ শ্রীদেবীর মরদেহ নিয়ে বিশেষ বিমানে রওনা হতে পারেন বনি কাপুর ও পরিবারের অন্য সদস্যরা। তবে আজই (২৬ ফেব্রুয়ারি) শেষকৃত্য হবে কিনা তা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে।

এদিকে শ্রীদেবীর মৃত্যুর কারণ আর শেষকৃত্য নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও সকাল থেকে অনিল কাপুরের বাড়িতে জড়ো হয়েছেন বলিউডের সকল স্তরের শিল্পী-কুশলীরা। সেখানে শ্রীদেবীর দুই মেয়ে জাহ্নবী ও খুশি কাপুরও রয়েছেন।
সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও টাইমস অব ইন্ডিয়া

Sharing is caring!

Loading...
Open