ডাক্তার সেজে শিশু চুরি করতে গিয়ে ধরা

ডেস্ক রিপোর্টঃ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির এক সপ্তাহের মধ্যেই আরও একটি চেষ্টা হয়েছিল। তবে হাসপাতাল কর্মীদের সতর্ক অবস্থানে ধরা পড়ে যায় দুইজন। এরা চিকিৎসকের বেশে হাসপাতালে গিয়ে শিশু চুরির চেষ্টা করেছিল।

যে দুই জন আটক হয়েছে তাদের বেশভূষা চিকিৎসকদের মতই, কিন্তু আচরণে খটকা লাগায় সন্দেহ হয় হাসপাতালের কর্মীদের। আর এতেই ধরা পড়ে তারা।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এই দুইজনকে আটকের ঘটনার একটি ভিডিও ছড়িয়েছে ইউটিউবে। এতে দেখা যায়, একজন নারী এবং একজন পুরুষকে আটক করে পুলিশের গাড়িতে তোলা হচ্ছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রবিবার বিকালে সাড়ে পাঁচটার দিকে ৩৩ নম্বর গাইনি ও প্রসূতি ওয়ার্ড থেকে ফারজানা আকতার মনি ও মো. রাজ নামে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এরা ডাক্তার সেজে শিশু চুরি করতে যাওয়ার কথা স্বীকারও করেছেন।

আটক মো. রাজ চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার নিজামপুর কলেজ এলাকার বাসিন্দা। আর ফারজানা আকতার বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা।

দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে প্রায়ই শিশু চুরির খবর আসে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শিশুগুলোকে আর উদ্ধার করা সম্ভব হয় না। তবে কালেভদ্রে দুই একজন আটকও হয়েছেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূঁইয়া বলেন, ‘দুইজনেই স্বীকার করেছে, তারা চুরি করতে এখানে এসেছে। পরে তাদের পাঁচলাইশ থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।’

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, গত ২০ ফেব্রুয়ারি হাসপাতালের ২৯ নম্বর কেবিন ওয়ার্ড থেকে একটি শিশু চুরির ঘটনা ঘটে। এরপর হাসপাতালের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়। এর মধ্যে এই ঘটনা ঘটার পর নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে।

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক জালাল উদ্দিন ঢাকাটাইমসকে বলেন, দুইজনকে আটক খবর জেনেছি। তাদেরকে পুলিশ দিয়ে দেয়া হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open