ভারতের পরই শক্তিশালী দল বাংলাদেশ: সঞ্জয় মাঞ্জেরকর


সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ সঞ্জয় মাঞ্জেরকর এমন এক সময়ে কথাটি বললেন, যখন দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার কাছে টানা তিনটি সিরিজ হেরে বসেছে বাংলাদেশ। আগামী মার্চে শ্রীলঙ্কায় বসছে ত্রিদেশীয় ‘নিদাহাস ট্রফি’র আসর। সেই আসরে স্বাগতিক দল ছাড়াও অংশ নেবে বাংলাদেশ ও শক্তিশালী ভারত। ওই সিরিজ সামনে রেখেই টাইমস অব ইন্ডিয়ায় লেখা এক কলামে বাংলাদেশকে ভারতের পরেই শক্তিশালী হিসেবে উল্লেখ করলেন ভারতের সাবেক এই ক্রিকেটার এবং বর্তমানের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার।

সঞ্জয় লিখেছেন, ‘নিদাহাস ট্রফিতে বিদেশের মাটিতে নিজেদের প্রমাণ করার আরও একটি সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে ভারতীয়দের মতো বিশাল ক্রিকেটপ্রেমী জাতির সামনে নিজেদের তুলে ধরার। এর আগে বাংলাদেশের অগ্রগতি বেশ ধীর ছিল। তবে এ কারণে তাদের শারীরিক, মানসিক শক্তির উন্নতি ঘটেছে, ফিটনেসের উন্নতি হয়েছে। বেশ কিছু সিরিজও তারা জিতেছে। এতে তাদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে।’

ভারতের মত দল যখন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে টেস্ট সিরিজ হারল, তখন সমালোচনা উঠেছিল বিরাট কোহলিরা শুধু ঘরের মাঠেই দাপট দেখাতে পারে। ওয়ানডে সিরিজ ৫-১ ব্যবধানে জিতে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করেন কোহলিরা। বাংলাদেশকেও এখন বিদেশের মাটিতে নিজেদের প্রমাণ করতে হবে বলেই মনে করেন মাঞ্জেরকর। ভারতকে উদাহারণ হিসেবে গ্রহণ করার পরামর্শও দিয়েছেন তিনি।

সঞ্জয়ের ভাষায়, ‘বিদেশের মাটিতে নিজেদের প্রমাণ করার এখনও অনেক বাকি। এমনকি এই এক ইস্যুতে ভারতের সঙ্গেও বাংলাদেশের কোনো পার্থক্য নেই। তবে এই ত্রিদেশীয় সিরিজে আমি মনে করি বাংলাদেশই ভারতের পর সবচেয়ে শক্তিশালী দল। এই দলটিতে রয়েছে সাকিব আল হাসান এবং মুস্তাফিজুর রহমানের মত বিশ্বমানের দুজন ক্রিকেটার। দুজনেই গেম চেঞ্জার। আর একজনের কথা না বললেই নয়, নিজের দিনে যে কাউকে হারিয়ে দিতে পারেন ওপেনার তামিম ইকবাল।’

উল্লেখ্য, নিদাহাস ট্রফিতে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি, জসপ্রীত বুমরাহ, ভুবনেশ্বর কুমারসহ বেশ কয়েকজন তারকাদের বিশ্রামে রাখার কথা ভাবছে ভারত। শেষ পর্যন্ত এটা সত্যি হলে মোটামুটি দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় যাবে ভারত। এরপরেও কিন্তু তারাই শক্তিশালী। তাছাড়া বাংলাদেশের মাটিতে হাথুরুসিংহের শ্রীলঙ্কা যে ম্যাজিক দেখিয়ে গেছে, ঘরের মাঠে আরও বেশি কিছু করবে তারা। সুতরাং, বাংলাদেশকে কঠিন পরীক্ষার মুখেই পড়তে হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open