১২ প্রাণ ঝরল একদিনেই

সুরমা টাইমস ডেস্কঃসারাদেশে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শুক্রবার অন্তত ১২ জন নিহত ও অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।নিহতদের মধ্যে ময়মনসিংহে ৪ জন, নাটোরে ৩, ফেনী ও মাদারীপুরে ২ জন করে এবং ভোলায় এক শিশু রয়েছে।

পরিবর্তন ডটকম প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে বিভিন্ন জেলার সড়ক দুর্ঘটনার চিত্র তুলে ধরা হলো;

ময়মনসিংহে বাস খাদে, নিহত ৪

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে উল্টে গেলে ৪ জন নিহত ও অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার চর হোসেনপুর ভূইয়া ফিলিং স্টেশনের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা সদরের সাইকেল আরোহী রতন মিয়া (২৫), নান্দাইলের হাবিব মিয়া (৩৫), জামালপুরের হাসিনা খাতুন ও অজ্ঞাত এক নারী।

আহতদের মধ্যে ১৫ জনকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং গুরুদর আহত ১০ জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসাপতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি বদরুল আলম জানান, ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা ভৈরবগামী শ্যামল ছায়া পরিবহনের বাসটি গাছে ধাক্কা লেগে পার্শ্ববর্তী খাদের উল্টে গেলে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাস্টার মাহফুজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে ঈশ্বরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নাটোরে বাইক আরোহী ৩ তরুণ নিহত

নাটোরের গুরুদাসপুরের বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের কাছিকাটা টোল প্লাজা এলাকায় বাস ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মোটর সাইকেল আরোহী গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা গ্রামের সায়দুল ইসলামের ছেলে বায়েজিদ হোসেন (১৬), যোগিন্দনগর গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে রাকিবুল ইসলাম (১৮) ও একই গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে আব্দুল হাকিম (১৩)।

গুরুদাসপুর থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, কাছিকাটা টোল প্লাজা এলাকায় নাটোরগামী যাত্রীবাহী বাস ও মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় বাসের নিচে চলে গেলে মোটর সাইকেল থেকে বাসটিতে আগুন ধরে যায়।

ঘটনাস্থলেই মোটর সাইকেল আরোহী তিন তরুণ নিহত হন। তবে বাসের কোনো যাত্রীরা নিরাপদে ছিলেন।

খবর পেয়ে নাটোর থেকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্য ও বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশ এবং গুরুদাসপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশগুলো উদ্ধার করে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় নিয়ে যায়।

পিকআপের ধাক্কায় দম্পতি নিহত

মাদারীপুরে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় স্বামী-স্ত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় এই দম্পতির ১০ বছর বয়সী ছেলে নয়নসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর দুইটার দিকে মাদারীপুর-শরীয়তপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের সদর উপজেলার সপ্তম চীন মৈত্রী সেতুর টোলপ্লাজায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহতরা হলেন- ফারুক সরদার (৩৫) ও তার স্ত্রী শিউলি বেগম (২৮)। তাদের বাড়ি খুলনার পাইকগাছা উপজেলার রামনাথপুর গ্রামে। তারা সবাই সদরের মাথাভাঙ্গা এলাকার মুক্তা ব্রিকস নামের একটি ইটভাটায় কাজ করতেন।

মাদারীপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন লিডার মনিরুজ্জামান মনির জানান, মাদারীপুর থেকে শরিয়তপুরগামী সারবোঝাই একটি পিকআপ ভ্যান সদর উপজেলার সপ্তম চীন মৈত্রী সেতুর টোলপ্লাজা এলাকায় যাত্রীবাহী একটি ভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানের যাত্রী ফারুক ও শিউলি মারা যান। তাদের সন্তান নয়নসহ আহত হন তিনজন।

ভোলায় অ্যাম্বুলেন্সের চাপায় শিশু নিহত

ভোলা-চরফ্যাশন অভ্যন্তরীণ মহাসড়কে অ্যাম্বুলেন্সের চাপায় সানজিনা নামে এক শিশু নিহত হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে বোরহানউদ্দিন উপজেলার মনিরাম বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সানজিলা (৯) একই উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের জাহাঙ্গির মিয়ার মেয়ে।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি অসীম কুমার সিকদার জানান, সানজিদা বাজার থেকে সদাই করে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় পেছন থেকে একটি দ্রুতগতির অ্যাম্বুলেন্স তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ফেনীতে পিকআপ চালক ও হেলপার নিহত

ঢাক-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর ছনুয়া নামক স্থানে শুক্রবার ভোরে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় পিকআপ চালক ও তার সহকারী (হেলপার) নিহত এবং একজন আহত হয়েছেন।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর ছনুয়া এলাকায় মোহাম্মদিয়া ময়দার মিলের সামনে মিলের নিজস্ব একটি পিকআপ বিকল হয়ে যায়। পিকআপটি মেরামত করা অবস্থায় পেছন থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী একটি কাভার্ড ভ্যান ধাক্কা দিলে চালক ও হেলপার ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

নিহতরা হলেন- ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা পিকআপ চালক ইকবাল হোসেন পাটোয়ারি ও নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার বাটচারী ইউনিয়নের বাসিন্দা হেলপার শামিম হোসেন।

গুরুতর আহত শ্রমিক আলী ফরাজীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনিও মোহাম্মদিয়া মিলে কর্মরত।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুহুরীগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মাহবুব আলম।

Sharing is caring!

Loading...
Open