বিপদ থেকে বাঁচলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রীসহ সহস্রাধিক যাত্রী


মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ঢাকাগামী উপবন ট্রেন এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়ে বৃহস্পতিবার রাত ১টা থেকে সিলেটের সাথে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এদিকে এই ট্রেনে সিলেট থেকে ঢাকা যাচ্ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানসহ সহ¯্রাধিক যাত্রী।

খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে অর্থ প্রতিমন্ত্রীকে নিরাপদে নামিয়ে সায়েস্তাগঞ্জ পৌছে দিলে সেখান থেকে প্রাইভেট গাড়ি যোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন বলে জানান, শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নিবার্হী কর্মকর্তা মো: আশেকুল হক।

বাংলাদেশ রেলওয়ের সিলেট বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পোনে ১টার দিকে শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে ষ্টেশন ছেড়ে সাঁতগাও রেলওয়ে ষ্টেশন অতিক্রমের পর ট্রেনের পুলিং রড ভেঙ্গে লাইনের পয়েন্ট এন্ড ক্রসিংএর কয়েকটি ব্লকের মধ্যে পড়ে ব্লক ভেঙ্গে আন্ডার গিয়ার ভেঙে যায়। ট্রেনের ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। এসময় রেলের বগি গুলো রেল সড়কের পাথরে আটকে যায়। এ সময় রেল লাইন দুমরে মুছড়ে যায় এবং কাটের স্লিপার গুলো ভেঙ্গে চুরমার হয়ে পড়ে।

উপবন ট্রেনের যাত্রী মাও. আব্দুল্লাহ মাহমুদ জানান, হঠাৎ করে তীব্র ঝাঁকুনি দিয়ে বগি লাইনচ্যুত হয় এবং দুলতে থাকে। এ সময় যাত্রীদের আর্ত চিৎকারে এক ভীতিকর পরিস্থির অবতারণা হয়। স্থানীয় জনগণ এগিয়ে এসে তাদের সহযোগিতা করেন।

ট্রেনের আরেকজন যাত্রী জীবনবীমা কর্পোরেশন প্রধান কার্যালয়ের কর্মকর্তা আতিকুর রহমান বলেন, রাত একটার দিকে বিকট শব্দ করতে করতে ট্রেন লাইনচ্যুত হতে থাকে। এ সময় এক ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি হয়। তবে ট্রেন স্বল্প সময়ের মধ্যেই থেমে যায় এবং বগিগুলো কাত হয়ে পড়ে।

এদিকে উদ্বার কাজের জন্য রাত ৪টায় কুলাউড়া থেকে টুলবাহি একটি ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌছে। অপর দিকে আখাউড়া থেকে আরও একটি রিলিফ ট্রেন রওয়ানা হয়েছে বলে জানান, সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান। শুক্রবার সকাল ৬টায় কুলাউড়া থেকে আসা টুলবাহী ট্রেন উদ্বার কাজ শুরু করে। তবে ট্রেনটি উদ্বার করতে অনেক সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open