ফাঁস হলো উচ্চতর গণিতের প্রশ্নপত্রও

সুরমা টাইমস ডেস্ক::    ফাঁস হলো উচ্চতর গণিতের প্রশ্নপত্রও। আজ বৃহস্পতিবার (২২শে ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয়েছে উচ্চতর গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ের পরীক্ষা। তবে পরীক্ষা শুরুর আগেই উচ্চতর গণিত বিষয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরীক্ষা শেষে প্রশ্নের সঙ্গে মিলিয়ে ফাঁস হওয়া সেটের হুবহু মিল পাওয়া যায়।

উচ্চতর গণিতের বহুনির্বচনি অভিক্ষার খ সেট প্রশ্নপত্রসহ উত্তরপত্র হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া গেছে সকাল ৯টা ৪ মিনিটে। অন্যদিকে ১০টায় বিজ্ঞানের প্রশ্নপত্র আসে হোয়াটসঅ্যাপে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ১২টি বিষয়ের প্রশ্নই ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া গেলো।

এ বিষয়ে ঢাকা বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শাহেদুল খবির চৌধুরী বলেন, “প্রশাসন এখন সজাগ। তারা এই চক্রকে ধরার চেষ্ঠা করছে। অনেককে ধরেছেও। আজকের প্রশ্নফাঁস হয়েছে কি না তা জানা নেই। পরীক্ষা শেষে মিলিয়ে দেখা হবে।”

উল্লেখ্য, গত ১লা ফেব্রুয়ারি বাংলা প্রথম পত্রের বহুনির্বচনি অভীক্ষার ‘খ’ সেট পরীক্ষার প্রশ্ন ও ফেসবুকে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের হুবহু মিল ছিল। পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে ফেসবুকে পাওয়া যায়। গত ৩রা ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টা ৩ মিনিটে বাংলা দ্বিতীয়পত্রের নৈর্ব্যক্তিক (বহুনির্বচনি) অভীক্ষার ‘খ’ সেটের উত্তরসহ প্রশ্নপত্র পাওয়া যায় ফেসবুকে। যার সঙ্গে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রশ্নপত্রের হুবহু মিল পাওয়া যায়। গত ৫ই ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরুর অন্তত দুই ঘণ্টা আগে সকাল ৮টা ৪ মিনিটে ইংরেজি প্রথম পত্রের ‘ক’ সেটের প্রশ্ন ফাঁস হয়।

গত ৭ই ফেব্রুয়ারি বুধবার পরীক্ষা শুরুর অন্তত ৪৮ মিনিট আগে সকাল ৯টা ১২ মিনিটে ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের ‘খ’ সেটের গাঁদা প্রশ্নপত্রটি হোয়াটসঅ্যাপের একটি গ্রুপে পাওয়া গেছে। গত ৮ই ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপের একটি গ্রুপে ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষার বহুনির্বাচনি অভীক্ষার ‘খ’ সেটের চাঁপা প্রশ্নপত্রটি পাওয়া যায়। গত ১০ই ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা ৫৯ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপের একটি গ্রুপে গণিতের ‘খ-চাঁপা’ সেটের প্রশ্নপত্রটি পাওয়া যায়। গত ১১ই ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা ৫১ মিনিটে হোয়াটসআপের একটি গ্রুপে আইসিটির ‘ক’ সেট প্রশ্ন পাওয়া যায় এবং সকাল ৯টা ৩ মিনিটে ‘গ’ সেটের প্রশ্নও ফাঁস হয়।

গত ১৩ই ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় বিজ্ঞান বিভাগের ‘পদার্থবিজ্ঞান’,মানবিক বিভাগের ‘বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা’ এবং বাণিজ্য বিভাগের ‘ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং’। এদিন সকাল ৮টা ৫৮ মিনিটে পদার্থবিজ্ঞানের বহুনির্বচনি অভীক্ষার ‘গ সেট’র প্রশ্ন উত্তরপত্রসহ হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া গেছে। আর পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণ পরেই সকাল ১০টা ৫ মিনিটে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং-এর ‘ঘ’ সেট’র প্রশ্নপত্রও পাওয়া যায় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে।

গত ১৫ই ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত রসায়ন, পৌরনীতি ও নাগরিকতা এবং ব্যবসায় উদ্যোগের মধ্যে শুধু রসায়নের প্রশ্নপত্র পাওয়া যায় পরীক্ষার আগে। সকাল ৯টা ৫ মিনিটে রসায়নের ‘খ’ সেট প্রশ্নপত্রটি হোয়াটসঅ্যাপের গ্রুপে পাওয়া যায়। গত শনিবার (১৭ই ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের প্রশ্নপত্র পরীক্ষার এক ঘণ্টা আগে ৯ টা ৫ মিনিটে পাওয়া যায় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে। গত ১৯ই ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত জীব বিজ্ঞানের প্রশ্নপত্রও ফাঁস হয় পরীক্ষা শুরুর আগে।

Sharing is caring!

Loading...
Open