টানা ১১ দিন কবরে জীবিত নারী…….!

সুরমা টাইমস ডেস্ক::  ভুলবশত মৃত ভেবে এক নারীকে সমাহিত করার পর ১১ দিন তিনি ওই কবরে কফিনের ভেতর জীবিত ছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ব্রাজিলের রিয়াচও দাস নেভেসে ঘটেছে এ ঘটনা।

রোজংলা আলমেদিয়া দোস সান্তোস নামে ৩৭ বছর বয়সী ওই নারীকে ভুলবশত জীবিত সমাহিত করার আগে তার কফিন পেরেক দিয়ে এঁটে দেয়া হয়।

বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী স্থানীয়রা ওই কবর থেকে চিৎকার শুনতে পান। এরপর রোজংলার পরিবারের সদস্যরা এসে কফিনটি আবার যখন খোলেন ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে অনেক। ততক্ষণে সত্যিই মারা গেছেন তিনি।

মাটি থেকে রোজাংলার কফিন তোলার ভিডিওটিও জনসম্মুখে এসেছে। কফিনটি খোলার পর অনেকে বলতে শোনা যাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স ডাকার কথা। অন্যকেউ আবার ওই তরুণীর পায়ে হাত দিয়ে বলছেন, শরীর এখনও উষ্ণ আছে।

গত ২৮শে জানুয়ারি রোজাংলাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। পরদিন তাকে সমাহিত করা হয়।

ফেব্রুয়ারির ৯ তারিখে কবরস্থানের আশপাশের মানুষেরা ওই নারীর পরিবারকে জানায় তারা কবর থেকে শব্দ পাচ্ছে।

কফিন থেকে নিথর দেহ বের করার পর তার শরীরে কয়েকটি জখমের চিহ্ন থেকে এখন ধারণা করা হচ্ছে ভেতর থেকে কফিনটি ভেঙে বেরিয়ে আসার প্রাণপণ চেষ্টা করেছিলেন তিনি।

সান্তোসের বোন ইসামারা আলমেইদা বলছেন, আমরা চিকিৎসকদের কাউকে দোষ দিতে চাই না, কোনো সমস্যাও করতে চাই না, কিন্তু আমরা পুরো বিষয়টা দেখেছি, কোনো মানুষকে মাটি দেয়ার ১১ দিন পরও তার দেহ উষ্ণ থাকবে- এটা কোনোভাবেই সম্ভব না।

বিষয়টি পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশকে জানানো হয়েছে। পুলিশ বলছে, প্রয়োজন হলে ওই নারীর দেহ আবার কবর থেকে তোলা হবে।

যে হাসপাতাল ওই নারীকে মৃত ঘোষণা করেছিল তারা বলছে, তারা সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।

Sharing is caring!

Loading...
Open