দিরাইয়ে খুনের ঘটনায় ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা::            দিরাই উপজেলার টান্নি জলমহাল দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার পর এজাহার নামীয় আসামী ধীতপুর মৎস্যজীবি সমিতির সম্পাদক অনীল দাসকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে দিরাই থানা পুলিশ। নিহত মজনু মিয়ার ছেলে হুমায়ুন মিয়া বাদী হয়ে ঘটনার দিন রাতেই থানায় মামলাটি দায়ের করেন। দিরাই থানার মামলা নং ১২। মামলায় কুলঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জালাল উদ্দিন চৌধুরী ওরফে ডনেল ও তেতৈয়া গ্রামের আব্দুল আলীম মেম্বারসহ ২৫ জনকে আসামী করা হয়েছে। দিরাই থানার ওসি মোস্তফা কামাল জানান,ঘটনার পর পরই হত্যাকান্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে জন্য বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক অভিযান চালায় পুলিশ। মামলার এজাহার নামীয় আসামী ধীতপুর মৎস্যজীবি সমিতির সম্পাদক অনীল দাসকে বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় দিরাইয়ে টান্নি জলমহাল ইজারার নামে হাওর দখলে বাঁধা দেয়ায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কুলঞ্জ গ্রামের জালাল উদ্দিন চৌধুরী ওরফে ডনেলের লোকদের হাতে এক নিরীহ ব্যক্তি প্রাণ হারান । তিনি কুলঞ্জ ইউপির তেতৈয়া গ্রামের মৃত আলম উল্লার ছেলে মজনু মিয়া (৬৫)। এদিকে, গতকাল শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় তেতৈয়া গ্রামের খেলার মাঠে নিহত মজনু মিয়ার নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open