ধর্ষণের পর বিয়ে না করায় ধর্ষণের প্রমাণ নিতে ঘটনার ৩দিন পর হাসপাতালে ভর্তি


হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: ধর্ষণের পর বিয়ে না করায় ধর্ষণের প্রমাণ নিতে ঘটনার ৩দিন পর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এক নারী শ্রমিক। শুক্রবার সকালে সে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

জানা যায়, বিশ্ব ভালবাসা দিবসে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার অলিপুর এলাকার এক বাসা থেকে টমটম চালক রিয়াজ মিয়া ও ওই যুবতীকে আটক করে স্থানীয় জনতা। পরে তাদেরকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

আটকরা হল- শায়েস্তাগঞ্জ পৌর এলাকার বাসিন্দা রুবেল মিয়ার পুত্র টমটম চালক রিয়াজ মিয়া (২২) ও বানিয়াচং উপজেলার কবিরপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রাণ আর এফএল-এর শ্রমিক (২০)।

তাদের বিরুদ্ধে ২৯০ ও ৫৪ ধারায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করে গত বুধবার বিকেলে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার তারা জামিনে বের হয়ে আসে। পরে রিয়াজ যুবতীকে বিয়ে করতে নারাজ হলে বৃহস্পতিবার ওই যুবতী তাকে ধর্ষণের প্রমাণ নিতে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজিম উদ্দিন জানান, তাদেরকে আটক করার পর কোর্টের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। পরে তাদের জামিনের বিষয়টি আদালত জানে। পরের ঘটনাগুলো আমাদের জানা নেই।

Sharing is caring!

Loading...
Open