সাকিবকে খেলতে দিচ্ছে না টি-টুয়েন্টিও!


সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ আগের দিন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজের ঘোষিত দলে রাখা হয়েছিল অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে। আগামী বৃহস্পতিবারের আগেই তিনি সুস্থ্ হয়ে উঠবেন বলে আশা করেছিলেন নির্বাচকরা। কিন্তু বাস্তবে এখনও সুস্থ্ হয়ে ওঠেননি সাকিব। সম্পূর্ণ সুস্থ্ হতে লাগবে আরও দুই সপ্তাহ। এমনকি ঝুঁকি নিয়ে খেললেও দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে তাকে পেতে পারে বাংলাদেশ। প্রথম টি-টুয়েন্টিতে তার খেলা প্রায় অনিশ্চিতই বলা চলে।

গত ২৭ জানুয়ারি ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের ফাইনালে ফিল্ডিং করতে গিয়ে আঙ্গুলের ইনজুরিতে পড়েন সাকিব। এরপর থেকেই মাঠের বাইরে আছেন তিনি। গতকালই খোলা হয়েছে আঙ্গুলের ব্যান্ডেজ। যদিও ঔষধ খাওয়া বন্ধ করেছেন আরও ৪/৫ দিন আগেই। তবে এখনই খেলার মতো উপযোগী হননি তিনি। আরও কমপক্ষে ২ সপ্তাহ লাগবে ইনজুরি সম্পূর্ণ সেরে উঠতে।

টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে যে খেলতে পারছেন না তা নিশ্চিত করলেন সাকিব নিজেই, ‘টি-টোয়েন্টি সিরিজে আসলে খেলার বোধহয় সম্ভবনা নেই। কারণ ডাক্তার বলেছে পুরো ক্ষত সারতে আরও দুই সপ্তাহ লাগবে। সেরকম হলে আসলে কীভাবে খেলব। আশা করি দুই সপ্তাহের মধ্যে রিহ্যাব করে শ্রীলঙ্কায় নিধাস কাপে খেলতে পারব।’

সাকিবের মতো প্রায় একই কথা বললেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী, ‘সাকিবের আঙ্গুলের যে বর্তমান অবস্থা তাতে প্রথম টি-টুয়েন্টিতে খেলার সম্ভবনা নেই বললেই চলে। তবে হালকা ঝুঁকি নিয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে খেলতে পারে। তবে এখনই বলা কঠিন। আরও কিছু দিন গেলে বোঝা যাবে পরিস্থিতি কি।’

এদিকে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে শ্রীলঙ্কার কাছে ট্রফি খুইয়েছে বাংলাদেশ। ফাইনালে সাকিবকে হারিয়ে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি টাইগাররা। এরপর টেস্টেও একই দশা। প্রতিনিয়তই সাকিবের অভাব ভালোভাবেই টের পেয়েছে বাংলাদেশ। তাই টি-টুয়েন্টি সিরিজে তাকে না পাওয়া দলের জন্য বেশ বড়সড়ই ধাক্কা। তাছাড়া এ সংস্করণেই যে তিনি সবচেয়ে বেশি অভিজ্ঞ। দলের অধিনায়কও।

Sharing is caring!

Loading...
Open