মায়ের হাতে প্রাণ গেল দুই শিশু পুত্রের


সুরমা টাইমস ডেস্ক::বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউনিয়নের কোনাউড়া-নোয়াগাঁও বালতির পানিতে ডুবিয়ে দুই শিশু পুত্রকে খুনের অভিযোগ উঠেছে মায়ের বিরুদ্ধে। তারা হচ্ছে-তিন বছর বয়সী নাহিদুল ইসলাম মারুয়ান ও ১৮ মাস বয়সী ওয়াহিদুল ইসলাম রুমান। শিশুদের হত্যার পর মা রনি বেগম ওরফে বিউটি আক্তার ডেটল সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আহত অবস্থায় তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটির বাবা কৃষক কবির আলীকে বিশ্বনাথ থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মঙ্গলবার বিকাল আনুমানিক ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বসত ঘরের অব্যবহৃত একটি বাথরুমে দুটি বড় বালতির মধ্যে পানি নিয়ে তাতে ডুবিয়ে (চুবিয়ে) ‘নাহিদুল ও ওয়াহিদুল’কে হত্যা করেছেন তাদেরই গর্ভধারিনী মা রনি বেগম ওরফে বিউটি আক্তার রনি। মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে বাবা কৃষি কাজ থেকে ফিরে এসে স্বামী ও সন্তানদের না পেয়ে পরিত্যক্ত একটি ঘরের বাথরুমে বালতির ভেতরে থেকে দুই সন্তানের লাশ উদ্ধার করে।
স্থানীয় ইউপি মেম্বার চমক আলী বলেন, এলাকাবাসী ধারণা মা তার দুই সন্তানকে বালতিতে পানি নিয়ে ডুবিয়ে (চুবিয়ে) তাদেরকে হত্যা করেছে। আর সন্তানদের হত্যা করে নিজেও আত্মহত্যার করার চেষ্টা করে। কিšুÍ পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাওয়ার কারণে তা সম্ভব হয়নি।
বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা বলেন, লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
আহত অবস্থায় মাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে-মা নিজের দুই শিশু পুত্রকে বসত ঘরের বাথরুমে বালতির মধ্যে পানিতে ডুবিয়ে (চুবিয়ে) হত্যা করেছে। শিশু দুটির বাবাকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open