হজ্বযাত্রীদের হয়রানির পেছনে এজেন্সি মালিকরা জড়িত

সুরমা টাইমস ডেস্ক::    হজ্বযাত্রীদের হয়রানি ও প্রতারণার শিকার হওয়ার পেছনে কিছু এজেন্সি মালিক প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত বলে জানিয়েছেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। আজ সোমবার বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তরে তিনি এ তথ্য জানান।

ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে অধিবেশনে এ সংক্রান্ত প্রশ্ন উত্থাপন করেন সরকারী দলের সদস্য মো. ইসলাফিল আলম। জবাবে তিনি আরো জানান, এ ধরনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত এজেন্সি লাইসেন্স বাতিল, জামানত বাজেয়াপ্ত, জরিমানা, কারণ দর্শানো নোটিশ জারিসহ বিভিন্ন ধরনের শাস্তির বিধান রয়েছে।

সরকারি দলের মো. নুরুল হকের প্রশ্নের জবাবে ধর্মমন্ত্রী জানান, ২০১৭ সালে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চার হাজার ১৯৫ জনসহ এক লাখ ২৭ হাজার ২২৯ জন বাংলাদেশি হজ্ব পালন করছেন।

জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে অধ্যক্ষ মতিউর রহমান জানান, ‘মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় অনুমোদিত ডিপিপি অনুযায়ী সারাদেশে যে সকল এলাকায় নেই সে সকল এলাকায় এ প্রকল্পের আওতায় মসজিদ ভিত্তিক অন্যান্য শিক্ষার পাশাপাশি প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম অন্তর্ভুক্ত করে ‘দারুল আরকাম’ ইবতেদায়ী মাদ্রাসা চালু করা হবে। এই কার্যক্রম প্রথম পর্যায়ে ২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণি থেকে তৃতীয় শ্রেণি এবং ২০১৯ শিক্ষা বর্ষে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত চালু হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open