বিএনপির আমলে পরোয়ানা ছাড়া কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি- শফি চৌধুরী

বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট-৩ আসনের সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া’র সিলেট সফর সফল করতে সর্বস্তরের নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।

বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকারকে দেখিয়ে দিতে হবে বিএনপির জনপ্রিয়তা।

আগামী ৮ই ফেব্রুয়ারি ষড়যন্ত্রমূলক মামলার রায়কে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি গ্রেফতারী পরোয়ানা বিহীন এ ধরনের গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। এমনকি আজকের বেগম জিয়ার মাজার জিয়ারতের সফরকে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাসাবাড়িতে তল্লাশী করা হচ্ছে। এটা নিন্দনিয়। বিএনপির শাসনামলে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি।

তিনি আজ ৪ঠা ফেব্রুয়ারি রোববার বিকেলে দক্ষিণ সুরমার একটি হোটেলে আগামীকাল ৫ই ফ্রেরুয়ারি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া’র সিলেট আগমন উপলক্ষে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপি আয়োজিত প্রস্তুত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী সাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, জেলা বিএনপি নেতা ফালাকুজ্জামান জগলু, বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বজলুর রহমান ফয়েজ, জেলা বিএনপি নেতা মকবুল হোসেন মামুন, মোল্লারগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আজির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল লতিফ খান, বরইকান্দি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাকারিয়া খান, সাধারণ সম্পাদক সাহেদুল ইসলাম বাচ্চু, তেতলী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমদ, কুচাই ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুর রহিম, সিলাম ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আত্তর আলী, সাধারণ সম্পাদক নজমুল ইসলাম, লালাবাজার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নছির মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জিলা মিয়া মেম্বার, জালালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি তফজ্জুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জয়দুল ইসলাম জয়দু, মোগলাবাজার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নামর আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, দাউদপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি এইচ.এম খলিল, সাধারণ সম্পাদক শামছুর রহমান শামীম, কামালবাজার ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মন্নান, উপজেলা বিএনপি নেতা শাহ মাহমদ আলী, এনামুল হক মাক্কু, মনিরুল ইসলাম তুরন, আশরাফ বাহার, ময়নুল ইসলাম মঞ্জু, আতাউর রহমান আতা, ফখরুল আলম, বাবরুল হোসেন, শামসুল হক মসুদ, জেলা ছাত্রদল নেতা সুহেল ইবনে রাজা, আজিজুর রহমান লায়েক, ফাহাদ আহমদ ও তাহমিদ আহমদ প্রমুখ। –বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open