ইলিয়াস আলী ভোটে নয়,দোয়ায় ফিরে আসবেন– এমপি এহিয়া

নিজস্ব প্রতিনিধি::   সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া বলেছেন, এলাকার জনগণ আমাকে যে প্রত্যাশা নিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন জানি না তাদের প্রত্যাশা কতটুকু পূরণ করতে পেরেছি। তবে মানুষের কল্যাণে কাজ করার চেষ্ঠা করেছি। এই এলাকায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির আমলেও অনেক উন্নয়ন হয়েছে। কিন্ত এই এলাকার (হান্দরচক) ব্রিজটি হয়নি।

এহিয়া বলেন, আল্লাহ আমাকে সুযোগ দিয়েছেন তাই কে আওয়ামী লীগ আর কে বিএনপি তা আমি বিবেচনা করি নাই। মামলা দিয়ে মানুষকে হয়রানী করি নাই। শান্তি, ঐক্য ও এলাকার উন্নয়নের লক্ষে কাজ করেছি। আমার সফলতা আর ব্যর্থতার হিসেব কষবেন জনগণ।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির দেশের শান্তি, উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বিশ্বাসী। যারা ক্ষমতায় থাকতে চান আর যারা ক্ষমতায় যেতে চান তাদেরকে এরশাদের দরজায় আসতেই হবে। তারা আচল না শিকল নিয়ে আসবেন তা তারাই সিদ্ধান্ত নেবেন।

তিনি আরো বলেন, জাতীয় রাজনীতিতে ইলিয়াস আলী অবদান রেখেছেন। তিনি ফিরে আসুন এটা আমরাও চাই। তিনি ফিরে আসবেন আমাদের দোয়ায়, ভোটে নয়। কিন্ত এই দোয়া করাটাও তাদের কাছে অপরাধ মনে হয়। নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীকে বিজয়ী করলে ইলিয়াস আলী ফিরে আসবেন এমন কথা দিয়ে মানুষের সাথে ভাওতাবাজী করা হয়। আবেগ দিয়ে চলনা করা যায়, উন্নয়ন হয় না। আমার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ আছে, সকলের দোয়া ও ভালবাসায় আমি অনেক দূর এগিয়ে যেতে চাই।

গতকাল শুক্রবার (২রা ফেব্রুয়ারী) বিকেলে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নে ১৪লাখ টাকা ব্যয়ে বাংলাবাজার-সাতপাড়া গ্রামের ৩২০মিটার রাস্তা পাকাকরণ ও ৪২ লাখ টাকা ব্যয়ে খাজাঞ্চী ইউনিয়নের হান্দরচক গ্রামের পশ্চিমে ইছামরা নদীর উপর নব-নির্মিত ব্রিজ এর শুভ উদ্বোধন শেষে হান্দরচক গ্রামের এলাকাবাসী আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খাজাঞ্চী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি উমর আলীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক এ কে এম দুলালের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক হাজী সিতাব আলী, জাপা নেতা আনোয়ার হোসেন ধন মিয়া মেম্বার, এলাকাবাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন মাস্টার কামাল উদ্দিন।

রাস্তা ও ব্রিজ উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন- বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ দুলাল আকন্দ, দৌলতপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবারক আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ছানাওয়ার আলী, ওয়াহাব আলী, এলাকার মুরব্বি আব্দুল মছব্বির, হাজী ইউনুছ আলী, হানিফ আলী, হাজী আছাব মিয়া, ইর্শাদ আলী, আব্দুন নুর, ইদ্রিস আলী, জমসিদ আলী, আহমদ আলী, আকল আলী, ফজর আলী, খালিক মিয়া, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আবুল খয়ের মেম্বার, ফিরোজ আলী, জাপা নেতা তাজ উদ্দিন বাবুল, বদর উদ্দিন, এম এ গণি, আনোয়ার আলী, তাজ উদ্দিন, নাজিম চৌধুরী, শাহিন মিয়া, শফিক আহমদ পিয়ার, সুহেল তাজ প্রমুখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open