‘আমি যেখানেই থাকি, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন’


সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থেকে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। শনিবার উত্তরার হোটেল লা মেরিডিয়ানে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় দেয়া বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়কে ইঙ্গিত করে খালেদা জিয়া বলেন, ‘নিম্ন আদালত সরকারের পুরো কব্জায়। কতটা কব্জায় তারাই ভালো বলতে পারবেন। তবে এটা সত্য, সঠিক রায় দেয়ার ক্ষমতা এখন তাদের (বিচারকদের) নেই।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি যেখানেই থাকি না কেন আপনারা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবেন। আমার জীবন থাকা পর্যন্ত আমি আপনাদের পাশে আছি। জনগণ আপনাদের পাশে আছে।’

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী দেশ রক্ষা, সরকারের অন্যায়-জুলুমের বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। একই সঙ্গে জাতীয় ঐক্য গঠনের ডাক দেন।

তিনি বলেন, ‘আসুন আমরা সবাই মিলে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষা, জনগণের জান-মাল রক্ষায় জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলি।’

খালেদা জিয়া দেশের প্রেক্ষাপটে যাই ঘটুক না কেন, প্রতিবাদ করলে নেতাকর্মীদের তা শান্তিপূর্ণভাবে করার নির্দেশ দেন।

আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ইভিএম-বিবিএম কিছুই বুঝি না। আগামী জাতীয় নির্বাচন হতে হবে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ এবং তা সহায়ক সরকারের অধীনে। কোনো দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচনে আগে অবৈধ সংসদ ভেঙে দিতে হবে। ভোটের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।’

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের মানুষ আমাদের সঙ্গে আছেন। সশস্ত্র বাহিনী, প্রশাসন সবাই আমাদের সঙ্গে আছেন। আপনারা কেউ ভয় পাবেন না। অবৈধ সরকারের অত্যাচার-জুলুমের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবেন।’

এক ঘণ্টার অধিক বক্তব্যে তিনি সরকারের লাগামহীন দুর্নীতি, প্রশ্নফাঁস, চাল ও পেঁয়াজের চড়া দামের কড়া সমালোচনা করেন।

এরআগে বেলা ১১টা ১০ মিনিটে খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে নির্বাহী কমিটির সভা শুরু হয়। শুরুতেই ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ অনুষ্ঠিত বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের পর থেকে এখন পর্যন্ত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বরেণ্য ব্যক্তিদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব আনা হয়।

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন শোক প্রস্তাব পাঠ করেন। এরপর তার স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এর মধ্যে রাজনীতিবিদ, পেশাজীবী, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সংবাদকর্মী, দলের নেতাকর্মী এবং শুভানুধ্যায়ীদের গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন বিএনপির নেতারা।

বেলা ১১টা পাঁচ মিনিটের দিকে খালেদা জিয়া হোটেল লা মেরিডিয়ানে উপস্থিত হন। এ সময় আগে থেকে হোটেলের বল রুমে উপস্থিত বিএনপির সিনিয়র নেতা ছাড়াও নির্বাহী কমিটির আমন্ত্রিত সদস্যরা খালেদা জিয়াকে শুভেচ্ছা জানান। তিনিও হাত নেড়ে তাদের শুভেচ্ছার জবাব দেন। এরপর নিজের আসন গ্রহণ করেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

Sharing is caring!

Loading...
Open