বিশ্বনাথে স্ত্রী হত্যার ঘটনায় মামলা এখনো অধরা ঘাতক স্বামী

নিজস্ব প্রতিনিধি::      সিলেটের বিশ্বনাথে দু’সন্তানের জননী গৃহবধূ লুবনা বেগমকে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত শনিবার রাতে নিহতের বড় ভাই উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের মৃত ওয়াহিদ আলীর পুত্র কামরুল হুদা (৪২) বাদি হয়ে এই মামলাটি দায়ের করছেন। মামলা নং- ১৪। মালার আসামী ঘাতক হেলাল মিয়াকে গ্রেফতার করতে তৎপর রয়েছে থানা পুলিশ।

মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মিজানুর রহমান বলেন, ঘাতক হেলালকে গ্রেফতার করতে আমরা অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের জানাইয়া গ্রামের মৃত জহুর আলীর পুত্র হেলাল মিয়া তার স্ত্রী দু’সন্তানের জননী লুবনা বেগমকে গলায় ছুরি দিয়ে খুন করে।

প্রায় ১০ বছর পূর্বে উপজেলার সদর ইউনিয়নের জানাইয়া গ্রামের মরহুম জহুর আলীর পুত্র হেলাল মিয়ার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন দেওকলস ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের মৃত ওয়াহিদ আলীর মেয়ে লুবনা বেগম।

হেলাল-লুবনার দাম্পত্য জীবনে আল-আমিন নামের ৯ বছরের এক পুত্র সন্তান ও নাজিফা বেগম নামের সাড়ে ৩ বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে গত শনিবার বিকেল ২টায় নিহতের পিতার বাড়ি উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামে জানাযার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লুবনা বেগমের দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open