সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আওয়ামীলীগের কোন নেতার সাথে বৈঠক হবে না

 সিলেট জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলীর অনুসারীদের হামলায় আহত দুই সাংবাদিককের উপর হামলা ও হামলাকারীদের বিচার এবং লিয়াকত আলীকে দল থেকে বহিষ্কার না করা পযর্ন্ত আওয়ামীলীগের কোন নেতার সাথে সাংবাদিকরা কোন ধরনের আলোচনা নয় মানববন্ধনে এমন ঘোষনা দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।সিলেটের আদলাত প্রাঙ্গণে দুই সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে সিলেট টেলিভিশন ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালনকালে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এই ঘোষণা দেন।
আজ রোববার দুপুরে শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের আহবায়ক শ্যামানন্দ দাশের সভাপতিত্বে মানববন্ধন পরবর্তী সভায় ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আল-আজাদ তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের বিচার না হওয়া প্রযন্ত সাংবাদিকরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন এবং সিলেট আওমায়ীলীগকে এ ঘটনায় সাংগঠিক ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান। সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপিত ইকরামুল কবির বলেন, হামলাকারীদের আটক এবং সাংগঠনিক বিচার না হওয়া পর্যন্ত আওমীলীগের সাথে কোন ধরনের আলোচনা হবে না। লিয়াকত আলীকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক থেকে বহিস্কার করার জন্য সিলেট আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রতি দাবি জানাচ্ছি। সাংবাদিকদের সাথে একাত্মতা পোষন করে বক্তব্য দেন সিলেট সুশাসনের জন্য নাগরিকের সভাপতি (সুজন) ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, তিনিও তার বক্তব্যে পাথরকেখো হিসেবে পরিচিত জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলীসহ তার অনুসারীদের গ্রেফতার এবং বিচারের দাবি জানান । একই সাথে একাত্মতা পোষন করে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম। মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরীও সাংবাদিকেদর উপর হামলাকরীদের শাস্তি দাবী করেন ।টিসিজিএর সদস্য নাজমুল কবীর পাভেল এর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে সূচনা বক্তব্য রাখেন টিসিজিএ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস সুটন সিংহ। আরো বক্তব্য রাখেন, ব্লাস্টের সিলেট শাখার সমন্বয়ক ইরফানুজ্জামান চৌধুরী, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম নবেল,সিলেট প্রেস ক্লাবের কোষাধক্ষ্য শাহাব উদ্দিন সিহাব, ইমজার সাধারণ সম্পাদক মঈন উদ্দিন মনজু, সিলেট ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়োশনের সাধারণ সম্পাদক শংকর দাস,সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক এস সুটন সিংহ,টিসিজেএর সাবেক সভাপতি আনিস রহমান,বাংলাদেশ মানব অধিকার সাংবাদিক কমিশনের সভাপতি ফয়সল আহমদ বাবলু ,দেশ টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান বাপ্প ঘোষ চৌধুরী, এনটিভির ব্যুরো প্রধান মঈনুল হক বুলবুল,যমুনা টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান মাহবুবুর রহমান রিপন,সিলেট প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদ রেনু, যুগান্তরের ব্যুরো প্রধান সংগ্রাম সিংহ ।সিলেট প্রেস ক্লাবের নিবার্হী সদস্য দিগেন সিংহ, আফতাব উদ্দিন নয়া দিগন্ত,এটিএন নিউজের ব্যুরো প্রধান সজল ছত্রী, ফয়সল আহমদ মুন্না ব্যবস্থাপনা সম্পাদক শুভ প্রতিদিন, আব্দুল মুকিত অপি সদস্য সিলেট প্রেস ক্লাব, মঞ্জুর আহমদ ব্যুরো প্রধান ইন্ডিপেডেন্ট টেলিভিশন, প্রত্যুষ তালুকদার ব্যুরো প্রধান ডিবিসি নিউজ, নাজমুল কবীর পাভেল নিউজ টুয়েন্টি ফোর , মোঃ বদরুর রহমান বাবর বাংলা ভিশন, ,শেখ নাসির ডেইলি স্টার, আহমদ সেলিম সিলেটের ডাক, ইউসুফ আলী সমকাল, ইয়াহইয়া ফজল কালের কন্ঠ, এ ই এ লস্কর রাব্বি কালের কন্ঠ, ইকবাল মুন্সি এটিএন বাংলা, এস আলম আলমগীর বাংলা টিভি, ,গোপাল বর্ধন ইন্ডিপেডেন্ট টেলিভিশন,শাকিল আহমদ সোহাগ চ্যানেল নাইন, নৌশাদ আহমদ চৌধুরী সময় টেলিভিশন, শফি আহমেদ চ্যানেল টুয়েন্টিফোর ও সদস্য সচিব টিসিজেএ, সাকিব আহমদ মিঠু একাত্তর টেলিভিশন, নুরুল ইসলাম উত্তর পূর্ব, অনিল পাল এটিএন নিউজ,কমলজিৎ শাওন ইকরা বাংলা টিভি,হাসান সিকদার সেলিম ডিবিসি নিউজ, হুমায়ুন কবীর লিটন দৈনিক জালালাবাদ, শাহিন আহমদ মাই টিভি,এস আই সবুজ দৈনিক বিজয়ের কন্ঠ, এম আর টুনু তালুকদার মাই টিভি, ,জীবন পাল দৈনিক যুগভেরী,শুভ্র দাস রাজন মাছরাঙা টেলিভিশন, শুভ্র পাল ইকরা টেলিভিশন,সাংবাদিক শামিম হোসেন ,রুহিন আহমদ চ্যানেল এস, সেলিম আহমদ ইকরা বাংলা,মাদব কর্মকার ইন্ডিপেডেন্ট টেলিভিশন ,প্রবীর কর্মকার ইকরা বাংলা টিভি ,মেহেদী হাসান রনী সিলেট সংলাপ, হোসাইন আজাদ মহনা টিভি, দুলাল হোসেন সিলেট বানী, ,হোসাইন সুজাদ চ্যানেল এস, পাপ্পু তালুকদার একুশে টিভি, অজিত সিংহ আর টিভি, ,রিহাদুল হাসান রুবেল ব্যবসায়ী, , মাহমুদুর রহমান মাহমুদ।
উল্লেখ্য গত ২৫শে জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুরে হত্যা মামলায় জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলীসহ তার অনুসারী ৩০ জনের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত। আদালত থেকে কোর্ট হাজতে নেয়ার পথে ছবি তুলতে যাওয়া যমুনা টেলিভিশনের চিত্র সাংবাদিক নিরানন্দ পাল ও দৈনিক যুগান্তরের চিত্র সাংবাদিক মামুন হাসানের উপর হামলা চালায় লিয়াকত অনুসারীরা।–বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open