সালিশে প্রেমিককে জরিমানা, মাদ্রাসাছাত্রীর ‘আত্মহত্যা’


হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: অশালীনতার অভিযোগ তুলে সালিশ-বৈঠকে কিশোর প্রেমিককে জরিমানা করার পর হবিগঞ্জ সদর উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী ‘আত্মহত্যা’ করেছে। সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ডালিম আহমেদ জানান, শহর সংলগ্ন রিচি গ্রামে শুক্রবার দুপুরে ‘আত্মহত্যার’ এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্বপ্না আক্তার (১৭) ওই গ্রামের রিকশাচালক আব্দুল মতলিবের মেয়ে। স্বপ্না রিচি মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ছিল। মতলিবের প্রতিবেশী দুলাল মিয়া বলেন, ওই গ্রামের এক কিশোরের সঙ্গে স্বপ্নার প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

“শুক্রবার ভোরে দুইজনকে এক ঘরে পাওয়া গেলে এ নিয়ে গ্রামে সালিশ-বৈঠক হয়। বৈঠকে তাদের বিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব ওঠে। কিন্তু বয়স কম হওয়ায় বিয়ে দেওয়া যায়নি। পরে ছেলের পরিবারকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।”

এর কিছুক্ষণ পরই স্বপ্নার আত্মহত্যার খবর ছড়িয়ে পড়ে বলে তিনি জানান।

পরিদর্শক ডালিম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করে। “সালিশ-বৈঠকের বিষয়টি শুনেছি। যারা সালিশ করেছেন তারা এ ব্যাপারে তাদের ব্যাখা দিতে থানায় আসবেন। মেয়ের পরিবারও থানায় আসবে অভিযোগ দিতে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open