মিরাজের পর মাশরাফির আঘাতে উৎসব

Bangladesh’s captain Mashrafe Mortaza celebrates the dismissal of Sri Lanka’s Kusal Mendis during the Tri-Nation one-day international cricket series in Dhaka, Bangladesh, Friday, Jan. 19, 2018. (AP Photo/A.M. Ahad)

সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ তৃতীয় ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজের আঘাত। ষষ্ঠ ওভারে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। নতুন বলের দুই বোলার শিরোপা জেতার শেষ লড়াইয়ের ম্যাচে শুরুতেই বেশ চাপে ফেলে দিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। যদিও দানুশকা গুনাথিলাকা (৬) ও কুশল মেন্ডিস (৯ বলে ২৮) তাদের উইকেট উপহারের মতো করেই দিয়ে এসেছেন। ফাইনালের চাপ বলে কথা। আর এই জোড়া আঘাতে শনিবার মিরপুরে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শুরুতেই বেশ চাপে ফেলা গেছে লঙ্কানদের। এই প্রতিবেদন লেখার সময় ১০ ওভারে ২ উইকেটে ৬০ রান লঙ্কানদের। উপুল থারাঙ্গা ১৫ ও নিরোশান ডিকভেলা ১১ রানে ব্যাট করছেন।

একাদশে ফিরে গুনাথিলাকার কাছে চারের মার খেয়ে বোলিং শুরু অফি মিরাজের। অন্যপ্রান্তে তিনি পেয়েছেন নেতা মাশরাফিকে। প্রথম ওভারটিতে তার মাত্র ২ রান। এবং তৃতীয় ওভারে এসে শোধ নিলেন মিরাজ। গুনাথিলাকাকে তামিম ইকবালের ক্যাচ বানিয়েছেন। এনে দিয়েছেন প্রথম ব্রেক-থ্রু। ৮ রানে প্রথম উইকেট নেই শ্রীলঙ্কার। কিন্তু তার পরের ওভারেই বিপত্তি। দারুণ মারমুখী হয়ে উঠলেন মেন্ডিস। মিরাজের ওই ওভারে ২৪ রান! মেন্ডিস টানা চার বলে মারলেন ৬, ৪, ৬ ও ৬ এর মার।

কাছ থেকে দেখে নেতা মাশরাফির রক্ত ফোটে। ষষ্ঠ ওভারের শেষ বল। ওই ওভারে মেন্ডিসের জন্য মাশরাফির সামনে প্রথম পড়া। এবং মাহমুদউল্লাহর হাতে যে ক্যাচটি তুলে দিলেন সেটিকে ক্যাচিং প্র্যাকটিস করানোও বলা চলে। ৯ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে যে বড় ঝড়ের আভাস দিয়েছিলেন মেন্ডিস, সেটাকে ২৮ রানেই থামিয়ে দিলেন মাশরাফি। ৪২ রানে প্রতিপক্ষের ২ উইকেট তুলে নিয়ে আরো চাপ বাড়ানোর অপেক্ষায় তখন টাইগাররা।

প্রথমবারের মতো কোন টুর্নামেন্টে শিরোপা জয়ের হাতছানি। কিন্তু ফাইনালের আগে বেশ বড়সড় ধাক্কা। শ্রীলঙ্কার কাছে উড়েই গেছে দলটি। সেই ধারাবাহিকতাই ধরে রাখতে চায় লঙ্কানরা। তাহলেই খাদের কিনারায় থাকা দলটি কূল খুঁজে পাবে। তবে শিরোপার এতো কাছে গিয়ে এবার আর খালি হাতে ফিরতে নারাজ টাইগাররা। দারুণ সতর্ক বাংলাদেশ শিবির। এমন ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমাল।

এই মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রাথমিক পর্বের চারটি ম্যাচেই টস জিতেছিলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে ফাইনালে জিতল লঙ্কানরা। এ ম্যাচে তিনটি পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। টানা চার ম্যাচে ব্যর্থ হওয়ায় দল থেকে বাদ পড়েছেন এনামুল হক বিজয় ও নাসির হোসেন। তাদের জায়গায় ঢুকেছেন মোহাম্মদ মিঠুন ও মেহেদী হাসান মিরাজ। বাদ পড়েছেন শেষ ম্যাচে খেলা আবুল হাসান রাজুও। পেস অল রাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনকে একাদশে ফেরানো হয়েছে।

পরিবর্তন আছে লঙ্কান দলেও। লাকশান সান্দাকানের জায়গায় একাদশে জায়গা পেয়েছেন শিহান মাদুসানকা। এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলছে বাংলাদেশ। যদিও এর মধ্যে আছে একটি টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে। তবে আগের তিনবারের কোনবারই ভাগ্যের শিকে খোলেনি টাইগারদের। তাই এবার শিরোপার স্বাদ পেতে মরিয়া মাশরাফির দল।

একাদশ-

বাংলাদেশ : মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিয়ায়ক), তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিঠুন, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

শ্রীলঙ্কা : দিনেশ চান্দিমাল (অধিনায়ক), উপুল থারাঙ্গা, দানুশকা গুনাথিলাকা, আসেলা গুনারত্নে, নিরোশান ডিকভেলা, কুশল মেন্ডিস, থিসারা পেরেরা, সুরঙ্গা লাকমাল, শিহান মাদুসানকা, আকিলা ধনঞ্জয়া ও দুশমন্ত চামিরা।

Sharing is caring!

Loading...
Open