জৈন্তাপুরের পাথরখেকো লিয়াকত ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা

সুরমা টাইমস ডেস্ক::     সিলেটের আদালত পাড়ায় সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় সিলেটের ত্রাস, আওয়ামীলীগনেতা লিয়াকত আলীসহ তার ক্যাডারদের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে। মামলার আসামিরা হচ্ছে, জাফলং-জৈন্তার পরিবেশ ধ্বংসকারী, জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মল্লিফৌদ গ্রামের ওয়াজেদ আলী টেনাইয়ের পুত্র লিয়াকত আলী, নয়াখেল গ্রামের ফয়েজ আহমদ বাবর ও নজরুল, আদর্শ গ্রামের শামীম আহমদ, হরিপুরের জুয়েল আরমান ও খারু বিলের হোসেইন আহমদ ছাড়াও অজ্ঞাত ১৫/১৬ জন।

আদালতে সন্ত্রাসী হামলায় আহত যমুনা টেলিভিশনের সিলেট অফিসের ক্যামেরা পার্সন নিরানন্দ পাল বাদি হয়ে আজ শুক্রবার এই মামলা দায়ের করেছেন। সিলেট কতোয়ালী মডেল থানার ওসি গৌছুল হোসেন মামলার রেকর্ডের তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে। মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়েছে পাথর লুটকে কেন্দ্র করে একজন প্রবাসীকে হত্যার মামলায় আসামি লিয়াকতসহ ৩১ জন আসামি জামিন নিতে আসেন। আদালত একজনের জামিন মন্জুর করে বাকি ৩০ জনকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। খবর পেয়ে আসামিদের ছবি তুলতে যান যমুনা টিভির ক্যামেরাপার্সন নিরানন্দ পাল, দৈনিক যুগান্তরের ফটোগ্রাফার মামুন হাসান ও চ্যানেল নাইনের ক্যামেরা পার্সন শাকিল আহমদ সোহাগ।

এসময় লিয়াকতের নিদের্শে সাংবাদিকদের উপর হামলা ও ক্যামেরা ভাংচুর করে তার বাহিনী। হামলায় প্রায় ৩ লক্ষাধিক মুল্যের একটি ক্যামেরা ভাংচুর হয়। পরে আহত সাংবাদিকদের উদ্ধার করে ওমসানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। যমুনা টিভির ক্যামেরাপার্সন নিরানন্দ পালের মাথায় মারাত্মক জখম রয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open