টিকে থাকতে শ্রীলঙ্কার দরকার ১৯৯ রান

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: ত্রিদেশীয় সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সুবিধে করতে পারলো না জিম্বাবুয়ে। ৪৪ ওভারে ১৯৮ রানেই সবকটি উইকেট হারিয়ে বসে গ্রায়েম ক্রেমাররা। দলের হয়ে একমাত্র হাফসেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান ব্র্যান্ডন টেইলর।

লঙ্কানদের আগের ম্যাচে ১২ রানে হারিয়ে ফাইনালে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল জিম্বাবুয়ে। সে ম্যাচে ২৯০ রান সংগ্রহ করেছিল দলটি। তবে এদিন দুই’শ রানও করতে পারলো না। শ্রীলঙ্কা যদি এ ম্যাচ জিততে পারে, তবে ফাইনালের আশা টিকিয়ে রাখবে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সলোমান মায়ারের ৪৪ রানের উদ্বোধোনী জুটি ভালো কিছুর সম্ভাবনা জাগায় জিম্বাবুয়ে। তবে ব্যক্তিগত ২০ ও ২১ রানে বিদায় নেন এই ওপেনাররা।

এর পর লঙ্কান বোলারদের তোপে টেইলর ছাড়া বাকিরা আসা-যাওয়ার মিছিলে ব্যস্ত থাকেন। ৮০ বলে ছয়টি চারের সাহায্যে ৫৮ করেন ডানহাতি টেইলর। ৩৪ রান আসে অধিনায়ক ক্রেমারের ব্যাট থেকে। এছাড়া ২৪ রান করেন ম্যালকম ওয়ালার।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল থিসারা পেরেরা। এ পেসার আট ওভার বল করে ৩৩ রানের বিনিময়ে চারটি উইকেট তুলে নেন। নুয়ান প্রদিপ নেন তিনটি উইকেট। আর দুটি উইকেট দখল করেন লাকসান সান্দাকান।ত্রিদেশীয় সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সুবিধে করতে পারলো না জিম্বাবুয়ে। ৪৪ ওভারে ১৯৮ রানেই সবকটি উইকেট হারিয়ে বসে গ্রায়েম ক্রেমাররা। দলের হয়ে একমাত্র হাফসেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান ব্র্যান্ডন টেইলর।

লঙ্কানদের আগের ম্যাচে ১২ রানে হারিয়ে ফাইনালে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল জিম্বাবুয়ে। সে ম্যাচে ২৯০ রান সংগ্রহ করেছিল দলটি। তবে এদিন দুই’শ রানও করতে পারলো না। শ্রীলঙ্কা যদি এ ম্যাচ জিততে পারে, তবে ফাইনালের আশা টিকিয়ে রাখবে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সলোমান মায়ারের ৪৪ রানের উদ্বোধোনী জুটি ভালো কিছুর সম্ভাবনা জাগায় জিম্বাবুয়ে। তবে ব্যক্তিগত ২০ ও ২১ রানে বিদায় নেন এই ওপেনাররা।

এর পর লঙ্কান বোলারদের তোপে টেইলর ছাড়া বাকিরা আসা-যাওয়ার মিছিলে ব্যস্ত থাকেন। ৮০ বলে ছয়টি চারের সাহায্যে ৫৮ করেন ডানহাতি টেইলর। ৩৪ রান আসে অধিনায়ক ক্রেমারের ব্যাট থেকে। এছাড়া ২৪ রান করেন ম্যালকম ওয়ালার।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল থিসারা পেরেরা। এ পেসার আট ওভার বল করে ৩৩ রানের বিনিময়ে চারটি উইকেট তুলে নেন। নুয়ান প্রদিপ নেন তিনটি উইকেট। আর দুটি উইকেট দখল করেন লাকসান সান্দাকান।

Sharing is caring!

Loading...
Open