ট্রাম্পের নারীপ্রীতির অজানা তথ্য……..!

সুরমা টাইমস ডেস্ক::
মানুষ নাকি সুন্দরের পূজারী। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও এর ব্যতিক্রম নন। কিন্তু তার নারী প্রীতি বাড়াবাড়ি পর্যায়ে। আর সুন্দরী হলে তো কথাই নেই, ধুম করে প্রেমে পড়ে যেতেন। ধনকুবের বলে মেয়ে পটাতে খুব বেশি সময় লাগতো না তার। মার্কিন মুলুকের বিভিন্ন মডেল, নায়িকা আর ফ্যাশন ডিজাইনারদের জড়িয়ে রয়েছে নানা কেচ্ছা কাহিনী। এমন কি অনেক বিদেশি নারীর সঙ্গেও ডেটিং করেছেন ট্রাম্প।

সম্প্রতি সাবেক এক পর্নস্টারের সঙ্গে ট্রাম্পের গোপন যৌন সম্পর্কের কথা ফাঁস হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে ওই পর্নস্টারের মুখ বন্ধ করতে কোটি টাকাও দিয়েছেন ওই মার্কিন ধনকুবের। কিন্তু একজন দুজন নয়, ট্রাম্পের গার্লফ্রেন্ডদের তালিকা দীর্ঘ। এ পর্যন্ত ১৩ নারীর খোঁজ পাওয়া গেছে যাদের সঙ্গে নিয়মিত ডেটিং করেছেন ট্রাম্প। তারা হলেন: স্টর্মি ড্যানিয়েলস, ম্যালানিয়া ট্রাম্প, ম্যারি ইয়ং, আলিসন গিয়ানিনি, ইনগ্রিড সেয়েনহায়েভ, কাইলি ব্যাকস, রাওয়ানে ব্রিওয়ার লেন, মার্লা ম্যাপলস, গ্যাব্রিয়েলা সাবাতিনি, ক্যান্ডিস বার্গেন, এনা নিকোল স্মিথ, কার্লা ব্রুনি ও ইভানা ট্রাম্প।

মার্কিন ফ্যাশন মডেল ও অভিনেত্রী কারা ইয়ং থেকে শুরু করে বিখ্যাত টেনিস তারকা সাবাতানির সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করেছেন ট্রাম্প। এদের মধ্যে তিনজনকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছেন। তারা হলেন; মেলানিয়া ট্রাম্প, মার্লা ম্যাপলস ও ইভানা ট্রাম্প। এখানে ট্রাম্পের কয়েকজন বিখ্যাত গার্লফ্রেন্ডের সংক্ষিপ্ত পরিচয় তুলে ধরা হল।

স্টর্মি ড্যানিয়েলস:- এই মার্কিন পর্নোস্টারের সঙ্গে ২০০৮ সালে প্রেমে জড়িয়ে পড়েছিলেন ট্রাম্প। ৩৮ বছরের এই নারী শুধু পর্নো ছবিতে অভিনয়ই করেন না, ছবির স্ক্রিপ্ট লেখা ও পরিচালনার কাজও করেন। যদিও এই সম্পর্ক বেশিদিন টিকেনি।

মেলানিয়া ট্রাম্প:- আজ থেকে বার বছর আগে সুন্দরী মডেল মেলানিয়াকে বিয়ে করেন ট্রাম্প। এর আগে দীর্ঘ ৬ বছর লিভ টুগেদার করেছেন দুজন। এনগেজমেন্টের ৯ মাস পর ২০০৫ সালের ২২ জানুয়ারি মেলানিয়াকে বিয়ে করেন ট্রাম্প। তাদের ১১ বছর বয়সী ছেলে রয়েছে যার নাম ব্যারন উইলিয়াম। এই সুন্দরী ট্রাম্পের দ্বিতীয় স্ত্রী।

ম্যারি ইয়ং:- ৫৬ বছর বয়সী এই মডেলের সঙ্গে ডেটিং করেছিলেন ২০০১ সালে। অর্থাৎ মেলানিয়ার সঙ্গে লিভ টুগেদার করার সময়ই এই নারীর প্রেমে মজেছিলেন ট্রাম্প।

আলিসন গিয়ানিনি:- ট্রাম্প ৪৬ বছরের এই নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ১৯৯৮ সালে। কিন্তু তাদের এই সম্পর্ক বেশিদিন টেকেনি। কেননা ওই বছরই মেলোনিয়ার সঙ্গে লিভ টুগেদার করতে শুরু করেন ট্রাম্প। গিয়ানিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী।

ইনগ্রিড সাইনিচ:- গুঞ্জন রয়েছে ট্রাম্প বেলজিয়ামের ৪৩ বছরের এই সুন্দরী মডেলের প্রেমে পড়েছিলেন ১৯৯৭ সালে।

মার্লা ম্যাপলস:- ৫২ বছরের এই নারী ট্রাম্পের দ্বিতীয় স্ত্রী। পেশায় একজন মডেল ও অভিনেত্রী। এছাড়া টিভি উপস্থাপক হিসেবেও কাজ করতেন। ১৯৯০ সালে এই সুন্দরীর সঙ্গে থাকতে শুরু করেন ধনকুবের ট্রাম্প। এর আগে দীর্ঘ ৩ বছর ধরে তারা চুটিয়ে প্রেমে করেন। ১৯৯৩ সালের ১৯ ডিসেম্বর ম্যাপলকে বিয়ে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। কিন্তু বেশিদিন টিকেনি এই বিয়ে। মাত্র ৫ বছর পর ১৯৯৯ সালের ৮ জানুয়ারি তাদের বিয়ে ভেঙে যায়। এই ঘরে একটি মেয়ে আছে। নাম টিফানি আরিয়ানা, বয়স ২৩। এই মেয়ের সঙ্গে ট্রাম্পের খুব বেশি যোগাযোগ নেই। তাছাড়া ট্রাম্প কন্যা ইভাঙ্কা ট্রাম্প ও পুত্র জুনিয়র ট্রাম্প নাকি টিফানিকে পিতার সম্পত্তি থেকে বেদখল করতে চায়।

গ্যাব্রিয়েলা সাবাতানি:- আর্জেন্টিনার সুন্দরী ক্রিকেট তারকা সাবাতানিকেও ছাড়েননি ট্রাম্প। তবে তাদের সম্পর্কের মেয়াদ মাত্র এক মাস। ৪৬ বছরের এই টেনিস তারকার সঙ্গে ১৯৮৯ সালের জুন থেকে জুলাই পর্যন্ত ডেটিং করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।ইভানা ট্রাম্প:- প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মার্কিন মডেল ও ফ্যাশন ডিজাইনার ইভানা ট্রাম্পকে (৬৪) বিয়ে করেছিলেন ১৯৭৭ সালের ৯ এপ্রিল। এর আগে এক বছর ধরে তারা ডেট করেছেন। আরও একবছর লিভ টুগেদার করেছেন। দীর্ঘ ১৪ বছর সংসার করার পর ১৯৯৯ সালে আলাদা হয়ে যান তারা। এই স্ত্রীর ঘরে ট্রাম্পের দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। এরা হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র (৩৯), ইভাঙ্কা ট্রাম্প এবং এরিক ট্রাম্প (৩৩)।

সূত্র:- র‌্যাংকার অনলাইন

Sharing is caring!

Loading...
Open