কমলগঞ্জে মোবাইল ফোনে জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে ০২জন আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সিলেটের মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় মোবাইল ফোন সহডাবুর বোর্ড ও তাসের মাধ্যমে চলছে জুয়ার রমরমা আসর। আর এই মোবাইল ফোনে লুডুর মাধ্যমে জুয়া খেলাকে বাধা দেওয়ায় জুয়াড়িদের হামলায় বাজার কমিটির সদস্য সহ দু’জন গুরুতর আহত হয়ে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

এলাকাবাসী জানান,উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের নইনারপার বাজার বনিক সমিতি কর্তৃক গেল কিছুদিন পূর্বে মাইকিং করে বাজারে সব ধরনের জুয়া খেলা থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়। গত রোববার ১৪ই জানুয়ারী রাতে নইনারপার বাজার এলাকায় দেলোয়ার ও রনি মিয়া নামের দুই জুয়ারী মোবাইল ফোনে লুডু দিয়ে জুয়া খেলার সময় নইনারপাড় বাজার বনিক সমিতির সদস্য জালালপুর গ্রামের মৃত বরকত মিয়ার পুত্র আমজদ মিয়া (৪০) ও আইনুদ্দিন (২২) তাদেরকে লুডু দিয়ে জুয়া খেলতে বাধা দেওয়ায়, ক্ষিপ্ত হয়ে এই জুয়াড়ী তাদের উপর ছুরি সশস্ত্র হামলা চালায়। তাদের হামলায় আমজদ মিয়া ও আইনুদ্দিন গুরুতর আহত হলে তাদের কে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমজদ মিয়ার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় মৌলবীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ বিষয়ে আহতের স্ত্রী শাহারুন বেগম বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে স্থাানীয় ইউপি সদস্য বশির বক্সের সাথে আলাপকালে তিনি জানান,আমি ঘটনাটি শুনেছি লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতা হাতির ঘটনা ঘটেছে। এক পর্যায় দেলোয়ার বেকারীর মধ্যে থাকা ছুরি দিয়ে আমজাদের উপর হামলা করে।
মামলার আইও কমলগঞ্জ থানার এসআই কৃষ্ণমোহন দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা ঘটনাস্হল পরিদর্শন করেছি। উভয় পক্ষের লোকজনই আহত হয়েছে, তদন্তক্রমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে কমলগঞ্জ উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় এই লুডুর জুয়া,ডাবুর বোর্ড ও তাস দিয়ে চলছে প্রতিদিন জুয়ার আসর।

Sharing is caring!

Loading...
Open