নির্বাচনে জয়লাভে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা হচ্ছে ‘নারীদের প্রচারণা’

সুরমা টাইমস ডেস্ক :: ‘নির্বাচনে নারী নেতৃবৃন্দের ভূমিকা ও করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার বিকেলে নগরীর হোটেল ভ্যালী গার্ডেনে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের আয়োজনে এ বৈঠকে অংশ নেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এ সময় বক্তারা বলেন, নির্বাচনে জয়লাভে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা হচ্ছে নারীদের প্রচারণা। তাই আগামী সংসদ ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণার জন্য নারীরা এখনই মাঠে নামতে হবে। নারীদের সংরক্ষিত কৌটা নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত না হয়ে পুরুষের পাশাপাশি ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

বক্তারা বলেন, শুধু পদ দখল করে বসে থাকলে চলবে না। পদের বিপরীতে কাজ করতে হবে। সকল শ্রেণির ভোটারদের সাথে উঠান বৈঠকসহ ব্যাক্তিগত ভাবে বৈঠক করতে হবে। শুধুমাত্র শহরের মধ্যে প্রচারণা না করে উপজেলা পর্যায়ে ছোট ছোট টিমে বিভক্ত হয়ে কাজ করতে হবে। সাধারণ ভোটারদের আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ড সম্পর্কে বুঝাতে হবে। মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য আরো বাড়াতে হবে। আগামী নির্বাচনের আগে মহিলা আওয়ামী লীগের সকল উপজেলা কমিটি গঠন করতে হবে।

বক্তারা আরো বলেন, অন্যান্য দল বিভিন্ন বিভ্রান্তমুলক তথ্য দিয়ে মানুষকে তাদের মতাদর্শে নিয়ে যাচ্ছে। তাই সাধারণ ভোটারদের এখনই সঠিকভাবে বুঝাতে হবে। না হলে ভোটাররা বিভ্রান্তিতে পড়ে যাবে। ভোটারের অধিকাংশই গরীব। বর্তমান সরকারও গরীবদের নিয়ে কাজ করছে। এ লক্ষে বিভিন্ন ধরণের ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করেছে। উপবৃত্তি, বিনামূল্যে বই বিতরণসহ সরকারের নানা কর্মকান্ডের কথা জনগণকে জানাতে হবে।

ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সিনিয়র রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর সুদীপ্ত চৌধুরীর সঞ্চালনায় গোলটেবিল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ন ইসলাম কামাল, মোহাম্মদ আলী দুলাল, দপ্তর সম্পাদক মো: সায়ফুল আলম রুহেল, উপ দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাজনীন হোসেন, সদস্য এড. মো: বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সিলেট জেলা যুবলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ জাহিদ সারওয়ার। গোলটেবিল বৈঠকে ‘নির্বাচনে নারী নেতৃবৃন্দের ভূমিকা ও করণীয়’ নিয়ে সুপারিশমালা উপস্থাপন করেন সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বেগম শামছুন নাহার ও সাধারণ সম্পাদক সালমা সুলতানা।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, শুধু পদ পেয়ে বসে থাকলে হবে না। পদের বিপরীতে কাজ করতে হবে। ত্যাগ করতে হবে। তবেই দলের মূল্যায়ন পাওয়া যাবে। আওয়ামী লীগ ত্যাগী নেতাদের সবসময় মূল্যায়ন করে। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক বলেন, আগামী নির্বাচনে নারীদের মাঠে কাজ করতে হবে। এ লক্ষ্যে আমরা কমিটি করে দেব। ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলে দলের উন্নয়নের বার্তা পৌছে দিতে হবে। তবে নির্বাচনে সাফল্য সম্ভব।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহানারা খানম মিলন, মাধুরী গুন, মিসেস হেলেন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এ জেড রওশন জেবিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রেহানা পারভীন, অঞ্জনা সরকার, আইন বিষয়ক সম্পাদক রশিদা সাইদা খানম, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক বীনা সরকার, প্রচার সম্পাদক শাহেনা বেগম চৌধুরী, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. শাবানা ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সাজেদা পারভীন, দপ্তর সম্পাদক হাসিনা মহিউদ্দিন, মা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দা রোমানা হক,

সদস্য মোছা. সাহিদা তালুকদার, পারভীন আক্তার, কোহিনুর সুলতানা,এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজনীন আক্তার কনা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেহজিন ওয়াজিহা ও তারান্নুম চৌধুরী, সিলেট সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হামিদা খান, সাধারণ সম্পাদক মোছা হাছিনা আক্তার, ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান, ইউকে মহিলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হুছনে আরা মতিন।

Sharing is caring!

Loading...
Open