ছাত্রলীগকর্মী তানিম খুনের ঘটনায় মামলা


সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ সিলেট সরকারী কলেজের স্নাতক ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী তানিম খান খুনের ঘটনার শাহপরাণ থানায় ২৯ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তানিম হত্যার ৪দিনের মাথায় বুধবার (১০ জানুয়ারি) রাতে নিহতের বন্ধু দেলোয়ার হোসেন রাহী বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন।

তানিম সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রনজিত সরকারের অনুসারি। ঘটনার পর থেকেই তানিম হত্যার দায়ে অভিযোগ উঠে সিলেট সিটি করপোরেশনের কাউন্সিল ও মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ গ্রুপের অনুসারিদের বিরুদ্ধে।

গত রবিবার (৭ জানুয়ারি) সিলেট নগরের টিলাগড় এলাকায় আধিপত্যের জের ধরে গলায় ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করার হয় তানিমকে।

মামলার এজহার নামীয় আসামিরা হচ্ছে- আজাদ গ্রুপের জয়নাল আবেদীন ডায়মন্ড,সাদিকুর রহমান আজলা, রুহেল আহমদসহ ২৯জন। এরমধ্যে পুলিশ ডায়মন্ড ও রুহেলকে গত সোমবার (৮ জানুয়ারি) তানিম খুনের মামলায় আটক দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ করে। তবে ঘটনার পর থেকেই পুলিশ মামলার অন্যতম আসামী কাউন্সিলর আজাদের ভাতিজা আজলাকে খোঁজে পাচ্ছে না। শুরু থেকেই তানিম খুনের নেপথ্যে তার সংশ্লিষ্টতা পায় পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানার ওসি আক্তার হোসেন জানান-নিহত ছাত্রলীগ কর্মী তানিমের বন্ধু দেলোয়ার হোসেন রাহী বাদী হয়ে ২৯জনকে আসামী করে বুধবার (১০ জানুয়ারি) রাতে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।এছাড়াও হত্যা মামলায় অারও ৪-৫জনকে অজ্ঞাত আসামী হিসেবে রাখা হয়েছে।

এজহার নামীয় আসামিদেরকে গ্রেফতারের স্বার্থে আর কারও নাম প্রকাশে অনিহা প্রকাশ করেন তিনি।

মামলা বিলম্ব হওয়া প্রসংগে তিনি বলেন- ঘটনার পর তানিমের পরিবারের কেউই থানায় অভিযোগ না করায় মামলাটি নথিভুক্ত করতে বিলম্ব হয়। বুধবার (১০ জানুয়ারি) রাতে পুলিশ তানিমের বন্ধুর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েই মামলাটি নথিভুক্ত করেছে। পুলিশ মামলার এজহার নামীয় অসামিদেরকে গ্রেফতার করার জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

Sharing is caring!

Open