এভাবে আর কতো মায়ের বুক খালি হবে?

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
গত ১লা জানুয়ারি খুন দিয়েই বছর শুরু করে সিলেটের ছাত্র রাজনীতি। সপ্তাহের শেষ মাথায় ৭ই জানুয়ারি রবিবার ঝরে যায় আরেকটি তাজা প্রাণ।

রবিবার সিলেট নগরীর টিলাগড়ে রাত সাড়ে আটটার দিকে খুন হয়েছেন ছাত্রলীগ কর্মী তানিম খান (২৩)। তানিম খান টিলাগড়স্থ রঞ্জিত গ্রুপের অনুসারী। টিলাগড়স্থ রাজমহল হোটেলে প্রতিপক্ষের ২০ থেকে ২৫ জন অস্ত্রধারী তাঁর উপর হামলা চালায়। পরে গুরুতর আহতবস্থায় তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়।

ধারণা করা হচ্ছে গত ৪ঠা জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এমসি কলেজে সশস্ত্র মহড়ারই বলি হলেন তানিম।

নিহত তানিম খান সিলেট সরকারি কলেজের বিএ পাস কোর্সের শিক্ষার্থী। তিনি ওসমানি নগর উপজেলার নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের ইসরাইল খানের পুত্র।

শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আখতার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অপরধীদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

এর আগে গত ১লা জানুয়ারি ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‍্যালিতে সামনে দাড়ানোকে কেন্দ্র করে নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে ছুরিকাহত হন ছাত্রদল নেতা আবুল হাসনাত শিমু। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকেও হাসপাতালে নিলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

একেতো বছরের শুরুর দিনেই একটি খুন অপরদিকে রোববার সপ্তাহের শেষ দিনে আরেকটি খুনের ঘটনায় সিলেট এখন সারাদেশের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। রাজনৈতিক অঙ্গণে বিরাজ করছে থমথমে পরিবেশ। এভাবে আর কতো মায়ের বুক খালি হবে?

Sharing is caring!

Loading...
Open