২০১৭ সালে বলিউডের পাঁচমিশালী…….

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: ২০১৭ সালের সারা বছর জুড়েই নানা রকম ঘটনায় সরগরম ছিল বিনোদনের স্বর্গরাজ্য বলিউড। এই সব ঘটনার কারণে বলিউডের অনেকেই ছিলেন আলোচিত। বছর শেষে সেই সব আলোচিতজনদের নিয়ে আজকের এই আয়াজন।বছরজুড়েই আনুশকা শর্মা-বিরাট কোহলির প্রেম ও বিয়ের সংবাদটি ছিল আলোচনার শীর্ষে। এছাড়া বলিউড অভিনত্রী আনুশকার নিজের প্রযোজনায় ছবি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পেয়েছে এ বছরেই।এ বছরের শেষে সব আলোচনার শীর্ষে চলে আসে সালমান খান। তার অভিনীতি ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ব্যবসা সফল হয়েছে। মুক্তির পরের দিন একটি টিভি শো-তে বিরূপ মন্তব্য করার কারণে বিতর্ক জন্ম দিলেন সালমান। দেখা যাক, এ নিয়ে জল কতটা ঘোলা হয়। এছাড়া সালমান খান বিয়ে কবে করছেন? এই বিষয়টিও এ বছরের আলোচনার শীর্ষে রয়েছে।

২০১৭ সালের আলোচিত ছিলেন সঞ্জয় লীলা বানসালি ও দীপিকা পাডুকোন। দুইজনেই `পদ্মাবতী` ইস্যু নিয়েই আলোচিত ছিলেন। দীপিকার কখনো নাক, কখনো মুন্ডু কেটে নেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছিল। সেই রেশ এখনো কাটেনি, আগামী বছর ছবি মুক্তি না দেয়া পর্যন্ত চলবে। তেমনি পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালির ওপর হামলা চালিয়েছিল রাজপুত কার্নি সেনা নামে একটি সংগঠনের কর্মীরা। `পদ্মাবতী` সিনেমার শুটিং চলাকালে তার ওপর এ হামলা চালানো হয়। এ নিয়ে বলিউডের অভিনেতা এবং পরিচালকরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। শুধু এই হামলাতেই ক্ষ্যান্ত নন। `পদ্মাবতী` নিয়ে সারাবছর আলোচনায় ছিলেন এ পরিচালক।

বলিউডের কুইন খ্যাত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত সারাবছর জুড়েই ছিলেন আলোচনায়। নানা রকম বেফাঁস মন্তব্য করায় কখনো আলোচিত কখনো সমলোচিত হয়েছেন। অভিনেতা হৃত্বিক রোশনের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে বেশ জলঘোলা হয়েছে। আইনি লড়াইয়ের সময় চিঠি এবং ই-মেইল ফাঁসের বিষয়টি নিয়ে বলিউড সরগরম ছিল। আইনি ঝামেলা শেষে নিজেদের মতো আলাদা আছেন তারা।

করন জোহরের সঙ্গেও দ্বন্দ্বে জড়িয়েছিলেন কঙ্গনা। কফি উইথ করন শোতে এসে রীতিমতো বিস্ফোরক ছিলেন কঙ্গনা। এমনিতে তিনি স্পষ্টবক্তা, আর তাই খোদ শোয়ের সঞ্চালকের নামে কিছু বলতেও বাধেনি তার। করন জোহরের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণের অভিযোগ এনেছিলেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। এমনকী করনকে মুফি মাফিয়াও বলেছিলেন তিনি। করনও মুখ খুলেন এ বিষয় নিয়ে।

কঙ্গনা যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে। কঙ্গনা বলেছেন, ছোটবেলায় তাকে যৌন হেনস্থা করেছেন আদিত্য পাঞ্চোলি। ইন্ডাস্ট্রিতে তখন সবে পা দিয়েছেন। আর ওই সময় সাহায্যের জন্য তিনি আদিত্যর স্ত্রীর কাছেও গিয়েছিলেন। তার কোনো সাহায্য পায়নি বলেও জানান কঙ্গনা। সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে শাবানা আজমির ‘পদ্মাবতী’নিয়ে একটি আবেদনপত্র জমা দেয়ার কথা ছিল। যেখানে বলিউড তারকাদের সাক্ষর ছিল। সে আবেদনপত্রে দীপিকা পাড়ুকোনের নিরাপত্তাকে নিশ্চিত করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। কঙ্গনা সেই আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করেননি। কারণ হিসেবে জানিয়েছেন তার সমর্থন আছে। কিন্তু হৃত্বিক ইস্যুতে শাবানা তাকে বাসায় ডেকে নিয়ে থ্রেট করেছেন।

এ বছরের আলোচিত আরেকটি হচ্ছে প্রভাসের বাহুবলির সাফল্য। `বাহুবলি’র সাফল্যর পর প্রভাসকে নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে ছিল। কখনো খবর বেরিয়েছে বলিউডে অভিনয় করছেন, আবার কখনো বিয়ে কিংবা প্রেম নিয়ে। প্রভাসের পারিশ্রমিক নিয়েও আলোচনা ছিল সারা বছর।

বলিউডের আরেক আলোচিতজন প্রিয়াংকা চোপড়া। এ বছরের দামি নারী টেলিভিশন তারকাদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ফোর্বস ম্যাগাজিন। তালিকায় দামি দশে রয়েছে ভারতের প্রিয়াংকা চোপড়ার নাম। হলিউডেই সময়টা বেশি কাটান প্রিয়াংকা, সেখানে বাড়িও কিনে ফেলেছেন তিনি।

প্রিয়াংকা চোপড়া জর্ডানে গিয়ে হাসি ঠাট্টায় শিশুদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছিলেন, তা নিয়েও সমলোচনায় পড়েন। কারণ, তিনি নিজ দেশ ভারতের শিশুদের পাশে না দাঁড়িয়ে ভিন দেশের শিশুদের সাহায্য করতে এগিয়ে গেছেন। এ নিয়ে ভারতজুড়ে সমালোচিত হন প্রিয়াংকা।

জার্মানির বার্লিনে ভারতের প্রধনমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সফরে গিয়েছিলেন, সেখানে শুটিং ছিল প্রিয়াংকারও। আকস্মিকভাবে মোদির সঙ্গে প্রিয়াংকার সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়। সাক্ষাতের সময় তাকে হাঁটু বের করা ছোট কাপড় পরিধান করা অবস্থায় দেখা যায়। আর সেটা নিয়ে অনলাইন দুনিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন কোয়ান্টিকোখ্যাত প্রিয়াংকা চোপড়া।

২০১৭ সালের আলোচনায় ছিলেন ভারতীয় সংগীত শিল্পী সনু নিগম। টুইটারে আজান নিয়ে নিজের মত প্রকাশ করতে গিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। টুইটে মুসলিমদের ফজরের আজানের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে সনু নিগম লেখেন, ‘ঈশ্বর সবার মঙ্গল করুন! আমি তো মুসলিম নই। তবে আমাকে কেন সকাল বেলা আজান শুনে ঘুম থেকে উঠতে হবে? বাধ্যতামূলক ধর্ম পালন ভারতে কবে বন্ধ হবে?’ এ নিয়ে সমলোচনা ও রোষের মধ্যে পড়েন সনু।

২০১৭ সাল জুড়ে আলো ছড়িয়েছেন রাজকুমার রাও। এ বছরে মুক্তি পেয়েছে অভিনীত পাঁচটি সিনেমা, মুক্তির অপেক্ষায় আছে আরো একটি, প্রত্যেকটি চরিত্র একটি থেকে অন্যটি ভিন্ন। একজন অভিনেতার জন্য এটি একটি বিশাল সাফল্যের ব্যাপার। ২০১৮ সালের অস্কারের অফিশিয়াল এন্ট্রি লাভ করেছে তার অভিনীত ‘নিউটন’ছবিটি। রাজকুমার ‘বোস’নামে একটি টিভি সিরিজেও অভিনয় করেছেন। ২০১৭ সালের জিও মিয়ামি ফিল্ম ফেস্টিভালে প্রদর্শিত হয়েছে হানসাল মেহতা পরিচালিত সিনেমা ‘ওমেরতা’। মুসলিম টেরোরিস্ট চরিত্রে প্রশংসিত হয়েছে। এরইমধ্যে বেশ কিছু পুরস্কার নিয়ে আলোচনায় আছেন রাজকুমার।

আলোচিতজনদর মধ্যে ছিলেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। এ বছরে পুলিশ অফিসার, চরিত্রহীন শিক্ষক, নাচিয়ে,আর ভাড়াটে খুনি কিংবা পাকিস্তানি কবি ভিন্ন ভিন্ন সব চরিত্র নিয়ে পর্দায় হাজির হয়েছিলেন নওয়াজউদ্দিন। কিন্তু সমলোচিত হয়েছেন নিজের আত্মজীবনীমূলক একটি বই প্রকাশ করে। যেটির নাম `অ্যান অর্ডিনারি লাইফ`। বইটিতে তিনি প্রাক্তন দুই প্রেমিকা নীহারিকা সিং এবং সুনীতা রাজওয়ারের সঙ্গে যৌনতা, নিজের চরিত্র এবং নিশিযাপন সম্পর্কে বেশ কিছু বক্তব্য তুলে ধরেন। সেই বইকে ঘিরেই চলছিল তুমুল বিতর্ক ও সমালোচনা। শেষে দুই প্রেমিকার অভিযোগের কারণে নিজের আত্মজীবনী প্রত্যাহার করেছেন।

বছরের আরেকটি আলোচিত ঘটনা সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশন প্রধান পদ থেকে সরানো হয়েছে পহেলাজ নিহালানিকে। গোড়া থেকেই তাঁর নানা ধরনের কাজকর্মে তিক্তবিরক্ত ছিল গোটা বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির ছবি ‘বাবুমশাই বন্দুরকবাজ’কে ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে ওঠে। ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’এর শরীরে পহেলাজের কাঁচি চালান ৪৮ বার। ‘উড়তা পাঞ্জাব’ থেকে তার সিদ্ধান্তে বিতর্ক তুঙ্গে ওঠে, এমনকি জল গড়ায় আদালত পর্যন্তও। এমনই একজন মানুষকে সরানো হলে বলিউডের অনেকেই স্বস্তির নিঃশ্বাস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেলেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open