আইনে ধনী গরীবের কোন বৈষম্য নেই–কামরুল আহসান

নিজস্ব প্রতিনিধি:: পুলিশের সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মো: কামরুল আহসান বিপিএম বলেছেন, মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের মূল লক্ষ্য উদ্দেশ্য ছিল বৈষম্যহীন সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলা। যেখানে মুক্তযোদ্ধের চেতনাকে ধারন করে সত্যিকার অর্থে ধনি গরীব সবাই সমান অধিকার নিয়ে সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করবেন। কিন্তু আজও সমাজে ধনী গরীবের মধ্যে পার্থক্য রয়ে গেছে। কিছু মানুষ সব ধরনের সুবিধা ভোগ করছেন। সেখান থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।

আজ শনিবার (২৩শে ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় কানাইঘাট থানা পুলিশের উদ্যোগে স্থানীয় ইউনিক কমিউনিটি সেন্টারে ওপেন হাউজ ডে ও কমিউনিটি পুলিশিং এর এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন।

বর্তমানে পুলিশের সেবা পরিধি তিনি তুলে ধরে বলেন, এই বাহিনীকে আরো আধুনিক এবং পুলিশের সেবা দ্রুত সাধারণ মানুষের দূরগোড়ায় পৌঁছে দিতে এবং সমাজ থেকে সব ধরনের অপরাধ মূলক কর্মকান্ড প্রতিরোধে পুলিশের সহায়ক শক্তি হিসাবে কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম আরো গতিশীল করা হচ্ছে।

ডিআইজি কামরুল আহসান বলেন, মানুষের সেবা করাই পুলিশের কাজ। আমরা অনেক সময় তা ভুলে যাই বলেই জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ওপেন হাউজ ডে’র আয়োজন করা হয়ে থাকে। এটি জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার অন্যতম মাধ্যম। এখানে সবার কথা বলার সুযোগ রয়েছে। এখান থেকেও আমরা গণতন্ত্রের শিক্ষা নিতে পারি এবং আইনে ধনী গরীবের কোন বৈষম্য নেই। সকল নাগরিকের সমান অধিকার রয়েছে।

কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: নুনু মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট উত্তর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত খাঁন, কানাইঘাট সার্কেলের এএসপি আমিনুল ইসলাম সরকার, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি আ’লীগের আহ্বায়ক সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান। বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, কমিউনিটি পুলিশের সদস্যদের ব্যাপক উপস্থিতিতে।

সভায় কানাইঘাটের সার্বিক আইন শৃঙ্খলার উন্নয়ন ও কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষ্যে বিভিন্ন মতামত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, পৌর আ’লীগের আহবায়ক জামাল উদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক রফিক আহমদ, ফারুক আহমদ চৌধুরী, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতি রোটারিয়ান শাহাজাহান সেলিম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান, চেয়ারম্যানদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেমস লিও ফারগুশন নানকা, ফয়াজ উদ্দিন, মাসুদ আহমদ, আলী হোসেন কাজল, ফখরুল ইসলাম, সদর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর, সুবেদার বীর মুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নাজমুল হক, সাতবাঁক ইউপি আ’লীগের সভাপতি হাজী মখদ্দুছ আলী, আ’লীগ নেতা তাজ উদ্দিন, ইউপি সদস্য ছাব্বির আহমদ, সেলিম চৌধুরী, কাউন্সিলার তাজ উদ্দিন, নারী নেত্রী রুবি রানী চন্দ, খাদিজা বেগম, ছাত্রনেতা মামুন রশিদ রাজু, মারুফ আহমদ, শমসের আলম প্রমুখ।

সভায় কিছু বিচ্ছিহ্ন ঘটনা ছাড়া কানাইঘাটের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা সন্তোষজনক রয়েছে। ওসির সুযোগ্য নেতৃত্বে জঙ্গিবাদ, মাদক, সন্ত্রাস, নারী নির্যাতন, ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং থানা এলাকার আইন শৃঙ্খলা উন্নয়নের নিমিত্তে গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা পালন করছে পুলিশ উল্লেখ করে অনেকে ভারতীয় তীর খেলা বন্ধ ও এই শীতের মৌসুমে চুরি-ডাকাতি ঘটনা প্রতিরোধে পুলিশের পাশাপাশি সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানান।

এসময় চরিপাড়ায় ডাকাতি মামলার আসামী হবিবুর রহমান উরফে হরু হুনা পুলিশের সাথে গোলাগুলিতে নিহত ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রুবেল আহমদের হত্যাকান্ডের বিষয়টি তদন্ত কমিটির মাধমে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটনের জন্য বক্তারা ডিআইজির প্রতি আহ্বান জানান।

Sharing is caring!

Loading...
Open