স্কুলছাত্রী মুন্নীকে খুন: এখনও গ্রেপ্তার হয়নি ইয়াহিয়া ,


সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ঘরে ঢুকে ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্রী হুমায়রা আক্তার মুন্নীকে (১৬) হত্যার তিন দিনেও অভিযুক্ত মো. ইয়াহিয়াকে (২২) গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

গত শনিবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে দিরাই পৌর শহরের মাদানী মহল্লায় ঘরে ঢুকে হুমায়রাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে ইয়াহিয়া। এ সময় হুমায়রা ও তার ছোট ভাই ওই কক্ষে পড়াশোনা করছিল। পড়ার টেবিলেই হুমায়রাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় ইয়াহিয়া। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে হুমায়রা মারা যান। প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ক্ষুব্ধ হয়ে ইয়াহিয়া এই কাজ করেন।

দিরাই বালিকা উচ্চবিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিল হুমায়রার। প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষায় সে জিপিএ-৫ পেয়েছে।

এদিকে ঘটনার পর সোমবার বিকেলে দিরাই থানায় মুন্নীর মা রাহেলা বেগম বাদী হয়ে একটি মামলা করেন। মামলায় উপজেলার করিমপুর ইউনিয়নের সাকিতপুর গ্রামের মো. ইয়াহিয়া সরদার ও দিরাই পৌর শহরের মাদানী মহল্লা এলাকার বাসিন্দা দিরাই ডিগ্রি কলেজের স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র তানভীর আহমদকে আসামি করা হয়। এরপর বিকেলেই পুলিশ ইয়াহিয়ার বন্ধু তানভীরকে গ্রেপ্তার করে। কিন্তু মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত ইয়াহিয়াকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান বলেন, ইয়াহিয়াকে ধরতে পুলিশের কয়েকটি দল জেলা ও জেলার বাইরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। র‍্যাবও ইয়াহিয়াকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের সুনামগঞ্জ কোম্পানির (সিপিসি-৩) অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার ফয়সাল আহমদ।

এদিকে, স্কুলছাত্রী হুমায়রার খুনি ইয়াহিয়াকে গ্রেপ্তারের দাবি সুনামগঞ্জে মঙ্গলবার পৃথক কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ মানবাধিকার কাউন্সিল ও প্রথম আলো বন্ধুসভা। কর্মসূচিতে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। বক্তারা স্কুলছাত্রী হুমায়রার খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open