উপজেলা সভাপতির ওপর ক্ষুদ্ধ বালাগঞ্জের তৃণমূল নেতাকর্মি’


সুরমা টাইমস ডেস্ক :: বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদারের ওপর ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠছেন তৃণমূল বিএনপির নেতাকর্মিরা। এ বিষয়ে নেতাকর্মিদের অভিযোগ তিনি ‘এম. ইলিয়াস আলীর হাজার হাজার নেতাকর্মির সাথে বিমাতাসুলভ আচরণ করছেন’ এবং তার অবমুল্যায়নের শিকার ‘দলীয় নেতাকর্মিরা হতাশায় ভোগছেন’। অবশ্য হতাশাগ্রস্ত ওইসব নেতাকর্মি ‘বিএনপি নেত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত’ করেছেন।

বালাগঞ্জ উপজেলার আজিজপুর বাজারে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় দলীয় নেতাকর্মিরা উপরোক্ত অভিযোগ জানিয়েছেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় স্থানীয় আজিজপুর বাজারে পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন ও বিভিন্ন ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মরম আলী।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সদস্য, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান, ইউনিয়ন শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও নবগঠিত ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি মো. আজম আলী, ৯নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি সজ্জাদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মো. ছমরু মিয়া, ৮নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মো. ফখরুল ইসলাম খান, সহ-সভাপতি মো. তৈয়ব আলী, ৭নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হাজী মো. আহমদ আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল জলিল রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক লেখন মিয়া, বিএনপি নেতা তোরণ মিয়া, মো. লুৎফুর রহমান, আশিক মিয়া, ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক ফয়ছল আহমদ প্রমুখ।

সভায় বক্তারা গত ২ ডিসেম্বর সাবেক সংসদ সদস্য এম. ইলিয়াস আলীর সিলেট শহরস্থ বাসভবনে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনার উপস্থিতিতে সিলেট জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও উপজেলা শাখার সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদার, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মইনুল হক, বালাগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এম. মুজিবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ছালিক মিয়ার মতামতের মাধ্যমে গঠিত ইউনিয়ন বিএনপির কমিটিকে অভিনন্দন জানান। ৯টি ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের মতামত ও ভোটের মাধ্যমে মো. আজম আলীকে সভাপতি, মো. হারুন মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক এবং মো. মইন উদ্দিনকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে নব-গঠিত পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন কমিটির নেতৃত্বে বিএনপির কার্যক্রম আরও জোরদার ও গতিশীল হবে বলে বক্তারা আশা প্রকাশ করেন।

সভায় বক্তারা অভিযোগ করেন, সিলেট জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদার ‘এম. ইলিয়াস আলীর হাজার হাজার নেতাকর্মির সাথে বিমাতাসুলভ আচরণ করছেন’ এবং এতে ‘দলীয় নেতাকর্মিরা হতাশায় ভোগছেন’। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, ‘কথিপয় দলীয় নেতৃবৃন্দ কমিটি গঠনের পরও তৃণমূল নেতাকর্মিদের মতামতকে অগ্রাহ্য করে বিএনপিকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করার অপচেষ্টা করছেন’। মতবিনিময় সভা শেষে দলের পক্ষ থেকে ‘লিখিত’ বক্তব্যে এসব অভিযোগ উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আলাপকালে পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন বিএনপির বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মরম আলী, নবগঠিত ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি মো. আজম আলী ও সাধারণ সম্পাদক মো. হারুন মিয়া অভিযোগ করেন ‘পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের মতামত ও ভোটের মাধ্যমে গত ২ডিসেম্বর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। কিন্তু উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদারসহ কথিপয় নেতাকর্মি এম. ইলিয়াস আলীর দুর্গ খ্যাত বালাগঞ্জে ‘বিএনপিকে দুর্বল করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে তৃণমূল নেতাকর্মিদের অবমুল্যায়ন করছেন’। তারপরও ‘বিএনপি নেত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনার নেতৃত্বে দলীয় সকল নেতাকর্মি ঐক্যবদ্ধ থাকবে’।

Sharing is caring!

Loading...
Open