নগরীতে সন্ত্রাসীদের হামলায় সিএনজি ভাংচুর, ০২জন গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক:: প্রশাসন ও রাজনীতিবিদদের আশ্বাসে পরিবহণ মালিক-শ্রমিকরে ধর্মঘট স্থগিত করা হলেও স্ট্যান্ড দখল ও চাঁদাবাজী বন্ধ হচ্ছে না। তারই ধারাবাহিকতায় সিলেট নগরীর ব্যস্ততম এলাকা আম্বরখানা পয়েন্টে ৫-৬টি সিএনজি অটোরিকশা ভাংচুর করেছে একদল সন্ত্রাসী।

আজ রোববার (১০ই ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আম্বরখানা পয়েন্টের ইষ্টিকুটুম রেস্টুরেন্টের সামনে আম্বরখানা-বন্দরবাজার সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডে এ ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এসময় হামলাকারীরা দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে অটোরিকশাগুলো ভাংচুর করে।

এদিকে ঘটনার পর জনবহুল এ এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। অটোরিকশাগুলো ভাংচুর করে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় ভাংচুরকারীরা।
ঘটনার খবর পেয়ে সিলেট কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঘটনাস্থলে থাকা সিলেট কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই মো: শফিকুল ইসলাম খান বলেন, হঠাৎ করে একদল সন্ত্রাসী আম্বরখানা সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডে এসে হামলা চালায়। এসময় অন্তত ৫টি সিএনজি অটোরিকশা তারা ভাংচুর করে। এঘটনায় জামাল আহমদ ও রাজু মিয়াকে আটক করা হয়েছে।

পরিবহণ নেতা রহমান আলী বলেন, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসীরা আমার সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়। বিগত দিনেও এভাবে হামলা চালিয়েছিল এ সমস্ত সন্ত্রাসীরা। কিছুদিন আগে আম্বরখানায় এভাবে সন্ত্রাসীদের হামলায় আমি ও আমার সহযোগীরা গুরুতর আহত হয়ে ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পাশাপাশি সকল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করার দাবি জানান তিনি।

Sharing is caring!

Open