মৌলভীবাজারে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের বলি ছাত্রলীগের দুই কর্মী

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সিলেটের মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে দুই কর্মী খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরের সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রাবাসের সামনে প্রতিপক্ষের হামলায় এ ঘটনা ঘটে।

তবে নিহতরা ছাত্রলীগের কর্মী নয় বলে জানিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান রনি। তাদেরকে যুবলীগের দুটি বলয়ের কর্মী হিসেবে দাবি করেন তিনি।

নিহতরা হলেন মৌলভীবাজার পৌর শহরের পুরাতন হাসপাতাল রোডের বাসিন্দা আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মৌলভীবাজার সরকারী কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী শাহবাব রহমান (২০) ও সদর উপজেলা দুর্লভপুর গ্রামের বিলাল হোসেনের ছেলে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহি আহমদ (১৭)।

তবে এ ঘটনায় কেউ আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান রনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ও জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মো. ফজলুর রহমানের বলয়ের দুটি গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিলো। ফজলুর রহমান জেলা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তিনি জানান, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম সুমন এবং মোস্তফাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ রুমেল এর নেতৃত্বাধীন দুটি গ্রুপের কর্মীরা সন্ধ্যায় স্কুলের মাঠে কলহে জড়ায়, এবং একপর্যায়ে একপক্ষ অপর পক্ষকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা করে দুজনকে হত্যা করে।

তবে নিহতরা কোন গ্রুপের কর্মী, তা তাৎক্ষনিকভাবে জানা যায়নি।

মৌলভীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুহেল আহমদ বলেন, সন্ধ্যা থেকেই দুটি গ্রুপের কর্মীরা সেখানে ছিলো এবং এক পর্যায়ে এক গ্রুপের কর্মীরা আরেক গ্রুপের উপর ধারারো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়, এতে দুজন নিহত হন।

ওসি সুহেল আহমদ জানান, জড়িতদের সন্ধানে পুলিশ অনুসন্ধান শুরু করেছে, নিহতদের মৃতদেহ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে রয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open