শ্রীমঙ্গলে রাতের আধারে মন্দিরের মূর্তি ভাংচুর

নিজস্ব প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে মূর্তি ভাংচুর করে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের উত্তরসুর শাহজিবাজার এলাকায় স্থাপিত ভৈরব মন্দিরে প্রবেশ করে কে বা কারা সিমেন্টের তৈরী একটি ভৈরব মূর্তির বাম হাত ও একটি বিপদনাশিনী মূর্তি ভেঙ্গে পালিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

ভৈরব তলীর পূজারী বন কুমার দাস বলেন, মন্দিরের কাজ শেষে প্রতিদিনের ন্যায় শুক্রবার দিবাগত রাতে তিনি তার ঘরে গিয়ে খাওয়া দাওয়া সেরে ঘুমিয়ে পড়েন। ভোর বেলা ঘুম থেকে উঠে মন্দিরে গেলে তিনি ভৈরব মূতিটি ভাঙ্গা অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের খবর দেন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা ছুটে আসেন।

স্থানীয় বাসিন্দা প্রানতোষ সোম মালু বলেন, প্রায় ১৪ পুরুষ আমলের পুরনো এই ভৈরব থলীটিতে বদিন্দ্র কুমার দাস সারা জীবন পূজা করে গেছেন। তাঁর মৃত্যুর পর তাঁর ছেলে বন কুমার দাস এই থলীর পূজারীর দায়িত্ব পালন করছেন। এ পর্যন্ত এই থলীতে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে কেউ দেখেন নি।

এদিকে মূর্তি ভাঙ্গার খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও বৈদিক পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত নেতাকর্মীরা শ্রীমঙ্গলের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় প্রশাসনিকভাবে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহন করে জড়িতদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য জোর দাবি জানান।

এ ব্যাপারে পুলিশি পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল।

Sharing is caring!

Loading...
Open