এমসি কলেজ ছাত্রাবাস পুড়ানোর মামলা পূণঃতদন্তের আহ্বান

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেছেন, এমসি কলেজ ছাত্রাবাস পুড়ানোর মামলার তদন্ত যথাযথভাবে হয় নাই বলে মনে করছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকদের ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলায় জড়িয়ে হয়রানী করা হচ্ছে। পিবিআই ও সিআইডির তদন্তে স্পষ্ট কোন দোষী সাব্যস্ত করা হয়নি। পরবর্তীতে বিচার বিভাগের তদন্তের নামে ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীদের সাথে সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সহ সাবেক জনপ্রিয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের জড়িয়ে প্রতিবেদন প্রদান করা হয়েছে। এ মামলায় অধিভুক্ত ২৯ জনের মধ্যে ১৯ জনই ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মী। তাই এ মামলার পূণঃতদন্ত করার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। পূণঃতদন্তের মাধ্যমে রাজপথের নিবেদিত ও ত্যাগী নেতাকর্মীরা নির্দোষ প্রমাণিত হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

তিনি বুধবার নগরীতে সিলেট মহানগর ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের বিক্ষোভ মিছিল শেষে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
তিনি আরো বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করে রাজপথে রক্ত ঝরায় তারা কখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করার হীনকর্মে লিপ্ত হতে পারে না।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত পুরকায়স্থ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সদস্য এডভোকেট ফখরুল ইসলাম।

সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কাউন্সিলর আফতাব হোসেন খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আফসার আজিজ, মহানগর শ্রমিকলীগের সভাপতি এম. শাহরিয়ার আলম, মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আলম খান মুক্তি।

সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনসুর আহমদের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম তুষার, আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তার খান, সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস ফারুক আহমদ সহ সিলেট মহানগর ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Sharing is caring!

Loading...
Open