নগরীতে ইসকনের তোরণ নির্মাণ নিয়ে উত্তেজনা,অবশেষে অপসারন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: নগরীর আম্বরখানা জামে মসজিদের প্রধান ফটকের সামনে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘের (ইসকন) দীক্ষাগুরু ‘শ্রীল জয়পতাকা স্বামী মহারাজের ছবি’ সম্বলিত তোরণ নির্মাণ নিয়ে মুসল্লিমের মাঝে উত্তেজনা দেখা দিলে তা সেখান থেকে সরিয়ে নিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। ইসকন দীক্ষাগুরুর সিলেট আগমন উপলক্ষে তাকে স্বাগত জানিয়ে তোরণটি স্থাপন করা হয়েছিল।

ইসকন সূত্র জানায়, তোরণটি যারা স্থাপন করেছে তাদের বেখেয়ালের কারণে এমনটি হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে জোহরের নামাজে আম্বরখানা জামে মসজিদে আসা মুসল্লিদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। খবর পেয়ে বিমানবন্দর থানার ওসি তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে এসে তাদের শান্ত করেন। পরে ঘটনাস্থলে ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী এবং উপ কমিশনার (দক্ষিণ) বিভূতি ভূষণ উপস্থিত হন।

এসময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিষয়টি ইসকন কর্তৃপক্ষকে জানালে ইসকনের ইয়ুথ ফোরামের পরিচালক দেবর্ষি বিভাসসহ চার-জন তাৎক্ষণিক সেখানে গিয়ে তোরণটি সরিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করেন।

এ ব্যাপারে ইসকন সিলেটের মিডিয়ার দায়িত্বে থাকা সিদ্ধ মাধব দাস জানান, ‘তোরণ স্থাপনের জন্য যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাদের বেখেয়ালের কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে। আমরা খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিনিধি পাঠিয়ে মসজিদে সামন থেকে তোরণ সরিয়ে নিয়েছি।’

এদিকে বিমানবন্দর থানার ওসি মোশারফ হোসেন বলেন, “আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘের (ইসকন) জি.বি.সি, দীক্ষাগুরু ও বিশ্ব পরিব্রাজকাচার্য শ্রীল জয়পতাকা স্বামী মহারাজের সিলেট আগমন উপলক্ষে আম্বরখানা মসজিদের মূল ফটকের সামনে তার ছবি সম্বলিত একটি তোরণ স্থাপন করলে মুসল্লিরা এতে আপত্তি জানায়। সাথে সাথেই ইসকন ইয়ুথ ডাইরেক্টরকে ব্যাপারটি জানালে তিনি মুসল্লিদের সাথে আলাপ করে তোরণ সরিয়ে নেন। ফলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।’

Open