জাফলংয়ে পাথর কোয়ারীতে নিহতের ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি:: গোয়াইনঘাটের জাফলং মন্দিরের জুম এলাকায় মাটি চাপায় কিশোরী নিহতের ঘটনায় ১১ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় প্রধান আসামী করা হয় কোয়ারি মালিক খলিলুর রহমানকে। এছাড়া মামলায় তার সহযোগী পূর্বজাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নানু মিয়াসহ ৬জনের নাম উল্লেখ করা হয়। অপর ৫ আসামি অজ্ঞাত।

সোমবার রাতে নিহত চম্পা দাসের (১৭) মা রেখা দাস গোয়াইনঘাট থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

গোয়াইনঘাট থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন জানান, দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় মামলাটি দায়ের করেছেন নিহতের মা রেখা দাস। মামলায় ১১ জনকে আসামী করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৩ই নভেম্বর সোমবার সকাল ৮টার দিকে জাফলং মন্দিরের জুম এলাকায় পাথর তুলতে গিয়ে মাটি চাপায় নিহত হন নারী শ্রমিক চম্পা দাস (১৭)। এছাড়া আহত হন আরো ৪ জন। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পূর্বজাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নানু মিয়াকে আটক করে।

Open