জাফলং রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী বরবারে স্বারকলিপি

বোমা মেশিনের তান্ডব থেকে জাফলংকে রক্ষার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সরেজমিন পরিদর্শন প্রত্যাশা করেছে দুটি সংগঠন। পরিবেশ উন্নয়ন ও পূরাকীর্তি সংরক্ষন কমিটি এবং জাফলং পর্যটন উন্নয়ন পরিষদ নামের জৈন্তা-গোয়াইনঘাট কেন্দ্রিক সংগঠন দুটি সিলেটের জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে বুধবার বেলা ১১টায় মানববন্ধন কর্মসুচির আয়োজন করে। জৈন্তা-গোয়াইনঘাট থেকে অংশ নেয়া প্রায় তিন শতাধিক স্থানীয় মানুষের অংশগ্রহনে চলা এ মানব্বন্ধন কর্মসুচি শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
পর্যটন উন্নয়ন ও পুরাকীর্তি সংরক্ষন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ফয়েজ আহমদ বাবুল-এর সঞ্চালনায় ও জাফলং পর্যটন উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি আতাউর রহমান বাবুলের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালিন সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য প্রদানকালে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেট শাখার সাধারন সম্পাদক আব্দুল করিম কিম বলেন, জাফলং বাঁচাতে পরিবেশ আন্দোলন দীর্ঘদিন থেকে আন্দোলন করছে। কিন্তু স্থানীয় মানুষের বোধোদয় না হওয়ায় এ জাফলং-এ চলা পরিবেশ বিধ্বংসী অপকর্ম থামানো সম্ভব হয়নি। আজকে যদি স্থানিয়রা নিজেসের ভূল বুঝতে পেরে এই পরিবেশগত সংকটাপন্ন এলাকাকে রক্ষায় এগিয়ে আসে তবে তা রক্ষা করা সম্ভবপর হবে। তিনি বিভিন্ন সময়ে বোমা মেশিন ব্যাবহার করে জাফলং-কে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়ার জন্য দায়ী ব্যাক্তি ও গোষ্ঠির বিচার দাবি করেন।
সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদক লিয়াকত আলি, জাফলং চা বাগানের ব্যাবস্থাপক এস এম একরামুল কবির, জাফলং পর্যটন উন্নয়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক আধাপক মো. খায়রুল ইসলাম, সারি বাচাও আন্দোলনের সভাপতি আব্দুল হাই আল হাদি, জাফলং পর্যটন উন্নয়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক মো উমর ফারুক, এস এম একরামুল কবির, জাফলং বাচাও সামাজিক যোগাযোগ গ্রুপের এডমিন জেড জাহাঙ্গীর, স্থানীয় পরিবেশ ও পর্যটন উন্নয়ন সংগঠক হানিফ, মোহাম্মদ, হানিফ আহমদ, ইমাম উদ্দিন, তাজ উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, ইমরান আহমেদ দুলাল, আব্দুল মান্নান, আব্দুল কাইয়ুম, মতিউর মুন্না প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।

Sharing is caring!

Loading...
Open