কানাইঘাটে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-পালিত

নিজস্ব প্রতিনিধি:: যথাযত মর্যাদায় কানাইঘাটে কমিউনিটি পুলিশিং-ডে পালিত হয়েছে। কমিউনিটি পুলিশিং এর কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করার জন্য বাংলাদেশ পুলিশের সকল ইউনিটের ন্যায় কানাইঘাটেও দিবসটি পালন করা হয়। শনিবার সকাল ১১ টায় কানাইঘাট থানা পুলিশের উদ্যেগে থানা প্রাঙ্গণ থেকে এক বর্ণাট্য র‌্যালী বের হয়ে পৌরশহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনঃরায় কানাইঘাট থানায় এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

“পুলিশই জনতা-জনতাই পুলিশ” এই স্লোগান নিয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও পুলিশ ইন্সপেক্টর তদন্ত মোঃ নুনু মিয়ার পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া সুলতানা, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট পৌরসভার সাবেক মেয়র উপজেলা আ”লীগের আহবায়ক লুৎফুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম, সিলেট এমসি কলেজের সাবেক সভাপতি এম তাজিম উদ্দিন, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের প্রতিষ্টাতা সভাপতি এমএ হান্নান, দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ,কানাইঘাট প্রেসক্লাবের বর্তমান সভাপতি রোটারিয়ান শাহাজাহান সেলিম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, দিঘীরপাড় ইউপির চেয়ারম্যান আলী হোসেন কাজল, বড়চতুল ইউপির চেয়ারম্যান মাওঃ আবুল হোসেন চতুলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার আফতাব উদ্দিন, ৬নং ইউপি আ’’লীগের সভাপতি হুসন আহমদ, পৌর কাউন্সিলর মাওঃ ফখর উদ্দিন, নারী নেত্রী খাদেজা বেগম প্রমুখ।

আলোচনা সভায় পুলিশের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তারা বলেন কমিউনিটি পুলিশিং একটি সেবাধর্মী কার্যক্রম। সকল বির্তকের ঊর্ধ্বে উঠে সম্পুর্ণ নিরপেক্ষভাবে পুলিশ ও জনতা এক সাথে কাজ করাই এর উদ্দেশ্য। সততা, নিষ্ঠা এবং সমাজ সেবায় প্রতিশ্রুতি হচ্ছে কমিউনিটি পুলিশিং এর মূল চালিকা শক্তি। জনগণের মধ্যে নাগরিক অধিকার এবং নাগরিক কর্তব্য ও দায়িত্ববোধ জাগ্রত করাই এর লক্ষ্য। জনগণ ও পুলিশের পারস্পরিক আস্থা, সমঝোতা ও শ্রদ্ধা কমিউনিটি পুলিশিং এর সাফল্যের চাবিকাঠি।

Sharing is caring!

Loading...
Open