বড়লেখায় প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু,লাশ ফেলে ভাসুরের পলায়ন

নিজস্ব প্রতিনিধি:: বড়লেখা হাসপাতালে কাতার প্রবাসী ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ২ সন্তানের জননীর লাশ ফেলে পলায়ন করেছে ভাসুর বদর উদ্দিন বদইসহ (৫০) শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

সোমবার সন্ধ্যা ৭ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত গৃহবধুর ছোটভাই কালাম উদ্দিনের দাবী স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার বোনকে নির্যাতনের পর মুমূর্ষু অবস্থায় মুখে বিষ ঢেলে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার মৃত্যু হলে শ্বশুর বাড়ির লোকজন হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।

জানা গেছে, উপজেলার সুড়িকান্দি গ্রামের কাতার প্রবাসী সামছুদ্দিনের সাথে স্ত্রী রুজিনা বেগমের (৩৯) পারিবারিক কলহ চলছিল। সামছুদ্দিন রোববার দেশে আসেন। গৃহবধু রুজিনা বেগমের বাবার বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদনগর গ্রামে। সোমবার সন্ধ্যা সাতটায় ভাসুর বদর উদ্দিনসহ পরিবারের লোকজন গৃহবধু রুজিনা বেগমকে হাসপাতালে নিয়ে যান। বিষপানে তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন জানিয়ে তারা হাসপাতালে তাকে ভর্তি করেন। রুজিনা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লে ভাসুরসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।

নিহত গৃহবধুর ভাই কালাম উদ্দিন অভিযোগ করেন স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার বোনকে নির্যাতন করে মুর্মূষু অবস্থায় মুখে বিষ ঢেলে হাসপাতালে নিয়ে যায়। মারা গেলে তার পালিয়ে যায।

বড়লেখা থানার ওসি মোহাম্মদ সহিদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছেন। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open