কমলগঞ্জে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে গৃহবধূ গুরুতর আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি:: বাড়িতে পুরুষ মানুষ না থাকার সুযোগে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ইসলামপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে মধ্য রাতে ঘরের দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করে এক দৃর্বৃত্ত ছুরিকাঘাত করে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর গৃহবধূকে আহত করে। গুরুতর আহত বিধবা গৃহবধূ মৌলভীবাজার জেলা সদরে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গতকাল বুধবার (১৮ই অক্টোবর) দিবাগত রাত অনুমান ১টায় এ ঘটনাটি ঘটে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কমলগঞ্জের শমশেরনগর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের সাফিয়া আক্তার (লিপি)-ও বিয়ে হয়েছিল ইসলামপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের আফজার হোসেনের সাথে। তাদের সংসারে ২ ছেলে ও ১ মেয়ে আছে। কয়েক বছর আগে আফজাল হোসেন মারা গেলে সাফিয়া বেগম তিন সন্তানকে নিয়ে একা বাড়িতে থাকেন। পুরুষ শূণ্য বাড়িতে তিন সন্তানের জননীর বসত ঘরের দরজা ভেঙ্গে এক দুর্বৃত্ত প্রবেশ করে। ঘরে প্রবেশ করেই টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার দাবি করে।

গৃহবধূ টাকা ও তেমন স্বর্ণালঙ্কার নেই বলার পর দুর্বৃত্ত হাতের ছুরি দিয়ে কূপিয়ে ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে বিধাব গুহবধূ সাফিয়াকে গুরুতর আহত করে। আহত গৃহবধূর ভাই নজরুল ইসলাম বৃহস্পতিবার সকালে এ প্রতিনিধিকে বলেন, এক দুর্বৃত্ত একাই ঘরে প্রবেশ করে টাকা ও স্বর্ণালংকার দাবি করে। তা দিতে বাঁধা দিলে দুর্বৃত্ত ছুরিকাঘাত করে ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আগত কওে একটি মুঠোফোন ও হাতের বালা এবং কানের স্বর্নের দুল নিয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে আহত সাফিয়াকে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তার (গৃহবধূর) অস্ত্রপচার করা হয়। ইসলামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open