অনির্দিষ্টকালের ডাকা পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটে শুরু হওয়া অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়ার আশ্বাসের প্রেক্ষিতে ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি জমির আহমদ।

সিলেট সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সেলিম আহমদ ফলিক বলেন, হামলাকারীদের গ্রেফতার ও অস্ত্র উদ্ধারে পুলিশ কমিশনারের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

এর আগে সকাল সাড়ে ১১টায় সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া শ্রমিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।

এদিকে, ধর্মঘটের কারণে সকালে আন্তঃজেলা ও সিলেটের আঞ্চলিক সড়কসমূহে যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়। তাতে চরম দুর্ভোগে পড়েন সাধারণ যাত্রীরা। শ্রমিকরা বিচ্ছিন্নভাবে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে বাঁশ হাতে নিয়ে হালকা যানবাহন চলাচল প্রতিহত করেন।

নিজেদের মধ্যে সংঘাতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার থেকে সিলেটে অনির্দিষ্টকাল ধর্মঘটের ডাক দেয় সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ইউনিয়ন। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সড়ক পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ওইদিন বিকেলে সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে অবস্থিত বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, বিএনপি নেতা ও স্থানীয় কুচাই ইউনিয়নের আবুল কালাম দখলীয় হোটেল তাজমহল দখলকে কেন্দ্র বাস টার্মিনালের বর্তমান ইজারাদার সেলিম আহমদ ফলিক গ্রুপ ও সাবেক ইজারাদার যুবলীগ নেতা মহসীন কামরান গ্রুপে মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

হোটেলের দখল নিতে গেলে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মহসীন কামরান পক্ষের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করে শ্রমিকরা। এতে গুরুতর আহত হন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহীনুর রহমান শাহীন। তিনি এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

অন্যদিকে সেলিম আহদ ফলিক ও শ্রমিক নেতা এবং সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কুচাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম পক্ষের কয়েকজন লোক আহত হন দাবি করে মহসীন কামরান গ্রুপের হামলাকারীদের গ্রেফতার ও অস্ত্র উদ্ধার দাবি করে ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শ্রমিক নেতা বলেন, হোটেল তাজ মহল মালিকানা। মালিকের সঙ্গে অপর পক্ষের দ্বন্দ্ব হয়েছে। হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এখানে শ্রমিকদের নিয়ে জড়ানো হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open