বাহুবলে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত!

নিজস্ব প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জের বাহুবলে ডাকাতিকালে জনতার গণপিটুনিতে অজ্ঞাত পরিচয়ে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় ডাকাত দলের হামলায় গৃহকর্তাসহ দুই জন আহত হয়েছেন।
মঙ্গলবার (১৭ই অক্টোবর) ভোররাতে উপজেলার স্নানঘাট ইউনিয়নের মহিষদুলং গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার স্নানঘাট ইউনিয়নের মহিষদুলং গ্রামের মর্তুজা মিয়ার বাড়িতে একদল ডাকাত ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে ডাকাতির চেস্টা করলে ঘরে থাকা লোকজন ও ডাকাতদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় তাদের শোর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে বাড়ি ঘেরাও করে এক ডাকাতকে আটক করে গণপিটুনি দিযে পুলিশে খবর দেন। এতে গৃহকর্তা মর্তুজা মিয়া ও তার ছেলে রুবেল মিয়া আহত হন। খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় ডাকাতকে পুলিশ প্রহরায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়। এদিকে বাড়ির লোকজন গৃহকর্তা ও তার ছেলে বাহুবল থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। দুপুরের দিকে আটক ডাকাতের অবস্থা আশংকাজনক হলে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে বেলা ১টায় মারা যায়।
বাহুবল মডেল থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ প্রহরায় প্রথমে হবিগঞ্জ হাসপাতালে পরে সিলেট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়। তাকে অজ্ঞান অবস্থায় আটক করা হয়েছিল তাই এখনও পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। তবে তার বাড়ী মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় একটি তথ্যে নিশ্চিত হয়েছি।

Sharing is caring!

Loading...
Open