তাহিরপুরে আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধী অভিযোগে মামলার প্রতিবাদে মিছিল

নিজস্ব প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধী অভিযোগে মামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

তাহিরপুর সদর পুর্ব বাজার শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে মধ্য বাজার দলীয় কার্যালয়ে প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়।

তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান তারার সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রাজন চন্দ এর পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, তাহিরপুর উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি সুষেন বর্মন, উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সদর ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি বাবর আলী, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা পুত্র এমদাদ নুর, উপজেলা আওয়ামীলীগ সদস্য আজিজুল হক, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও যুবলীগ নেতা হোসাইন শরীফ বিপ্লব, উপজেলা মৎস্যজীবীলীগ সহ-সভাপতি একরামুল হুদা, হাবুল মিয়া, শ্যামল মিয়া, আব্দুছ সালাম, আমির মিয়া, দক্ষিন শ্রীপুর ইউনিয়ন যুবলীগ সাবেক সভাপতি আব্দুল ওদুদ, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক সুয়েজ মিয়া, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি দ্বীজেন্দ্র লাল রায়, উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সাংগঠনিক সাম্পাদক নুরুল হুদা, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আবুল কাশেম, আশ্রাউজ্জামান ইমন, পথিক হাসান নবী, ধীমান চন্দ, আশরাফুল ইসলাম, পাপলু রহমান, মোনায়েম শরীফ, সাকির আহমেদ, বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদ যুগ্ম-আহবায়ক সুজন মিয়া, রোমান আহমেদ তুষা, মনিরাজ ইসলাম দুর্জয়, রকিবুর রহমান, নাদিম আহমেদ প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিএনপির দালালদের প্ররোচনায় তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদকের বিরোদ্ধে যুদ্ধাপরাধের যে ষড়যন্ত্রমুলক অভিযোগটি দায়ের করা হয়েছে তা একেবারেই ভিত্তিহীন।

প্রকৃতপক্ষে ১৯৭১ সালে যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে শফিকুল ইসলাম ৭ বছরের শিশু ছিলেন বলে বক্তরা বলেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open