কুুলাউড়ায় চাল চুরির মামলায় পলাতক ইউপি চেয়ারম্যান!

নিজস্ব প্রতিনিধি:: ভিজিএফের চাল চুরির অভিযোগে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলি তিন মাস ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। পলাতক অবস্থায় স্বামীর মাধ্যমেই তিনি ইউনিয়নের সকল কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। স্বাক্ষর করছেন জরুরি কাগজপত্রে। অথচ পুলিশ তিন মাসে একাধিকবার অভিযান চালিয়েও আটক করতে পারেনি এই পলাতক চেয়ারম্যানকে। জানা যায়, ২৫শে জুন কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের দুটি দোকান থেকে দু’দফা অভিযান চালিয়ে ১০ বস্তা ভিজিএফ চাল ও ১৩টি খালি বস্তা উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার চার দিন পর ২৯শে জুন রাতে পুলিশ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলিকে প্রধান আসামী করে চার জনের নামে মামলা দায়ের করেন কুলাউড়া প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. শিমুল আলী। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার তালিকাভুক্ত তিন আসামীকে আটক করে। আটককৃত তিন আসামী বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। চেয়ারম্যান পলাতক থেকে কিভাবে ইউনিয়নের কার্যক্রম পরিচালনা করেন এবং সকল কাগজপত্রে স্বাক্ষর করেন এমন কথার জবাবে ইউপি সচিব গোলাজার হোসেন চৌধুরী জানান, চেয়ারম্যানের স্বাক্ষরে সকল কার্যক্রম চলছে। তিনি বাড়িতে আছেন। ইউপি চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলির ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার বন্ধ থাকায় এ ঘটনায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে একাধিক সূত্র জানায়, উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিতে আত্মগোপনে রয়েছেন। কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শামীম মূসা জানান, একাধিকবার অভিযান চালিয়েও চেয়ারম্যানকে আটক করা সম্ভব হয়নি। মামলার তদন্ত কাজ চলছে। খুব দ্রুতই প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open