সন্ত্রাসীরা যে দেশেরই হোক এদের স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক ভেঙে ফেলতে হবে-খালেদা জিয়া

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদা অঙ্গরাজ্যের লাসভেগাসে বন্দুক হামলায় ৫৮ জনের মৃত্যুর ঘটনায় গভীর শোক ও নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বলেছেন, সন্ত্রাসীরা যে দেশেরই হোক এদের স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক ভেঙে ফেলতে হবে। এজন্য শুভবুদ্ধিসম্পন্ন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যৌথভাবে উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানান তিনি।মঙ্গলবার বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন খালেদা জিয়া।মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদা অঙ্গরাজ্যের লাসভেগাসে স্থানীয় সময় রবিবার রাতে বন্দুক হামলায় ৫৮ জনের মৃত্যু ও পাঁচশয়ের অধিক মানুষ আহত হয়।খালেদা জিয়া বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদা অঙ্গরাজ্যের লাস ভেগাস শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে আক্রান্ত মানুষের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করছি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই দুঃসময়ে তাদের বেদনার্ত জনগণ ও সরকারের মতো আমিও সমব্যথী। এই শোকাবহ ঘটনার সময়ে বাংলাদেশের জনগণ, বিএনপি এবং আমি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পাশে আছি।’খালেদা বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসীদের রঙ একই। এরা মানবতার বিরুদ্ধে বিবেকবর্জিত শত্রু। এরা দুনিয়াজুড়ে সভ্যতার দেহে ছুরিকাঘাত করছে। এরা গণতন্ত্র, উন্নত সমাজ ও সংস্কৃতিসহ অগ্রগামী মানবজাতির শ্রেষ্ঠ কীর্তিগুলোকে ধুলায় মিশিয়ে দিয়ে আবারো মধ্যযুগীয় অন্ধকার ফিরিয়ে আনতে চাচ্ছে। আদিম পাশবিকতার এরা নব্য সংস্করণ। রক্তপায়ী বন্দুকধারী সন্ত্রাসীদের রক্তাক্ত তাণ্ডবে বিশ্বের দেশে দেশে মানুষের শান্তি, স্থিতি ও স্বাভাবিক জীবনযাপন নিরাপদহীন হয়ে উঠেছে। এদের সৃষ্ট অন্ধকারময় পর্বের অবসান ঘটাতে হবে।’বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘সন্ত্রাসীরা যে দেশেরই হোক এদের স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক ভেঙে ফেলতে হবে। এজন্য শুভবুদ্ধিসম্পন্ন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যৌথভাবে উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি। আমি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লাসভেগাসে বন্দুক হামলায় ৫৮ জনের মৃত্যু ও পাঁচশয়ের অধিক মানুষের আহত হওয়ার পৈশাচিক ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং শোকাহত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।’অপর এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হামলায় শোক প্রকাশ করে বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই সংকটে আমরা সেদেশের জনগণ ও সরকারের পাশে আছি।

Open