নগরী থেকে রুহিঙ্গা সন্দেহে আটককৃত যুবক গোয়াইনঘাটের বাসিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেট শাহপরান থানার টুলটিকর ইউনিয়ন থেকে রুহিঙ্গা সন্দেহে কয়েস (২৫) নামে একজন আটক করে পুলিশ। গতকাল রোববার বিকাল ৫টায় চেয়ারম্যান আলী হোসেন ও ইউপি সদস্য সায়েম কয়েসকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। তবে পরে তদন্ত করে জানা যায় কয়েস রোহিঙ্গা নয় সে সিলেটের গোয়াইনঘাট আসামপাড়া গ্রামের সাহেব আলীর পুত্র।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কয়েস টুলটিকর ইউনিয়নে এসে দুর্ভেদ্য ভাষায় কথা বলতে থাকে। সন্দেহ করে এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এদিকে পরবর্তীতে কয়েসের পিতা সাহেব আলী খবর পেলে থানায় এসে তাকে মানসিক প্রতিবন্ধির পরিচয় দেন। এর আগেও সে দাদার বাড়ী কুমিল্লা যাওয়ার পথে হবিগঞ্জেও একি কান্ড ঘটায়। পরবর্তীতে হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ তাকে রোহিঙ্গা সন্দেহে চট্টগ্রামের উখিয়া ক্যাম্পে নিয়ে যায়। সেখানে ওই ক্যাম্পে একরাত রাখা হয়। পরবর্তীতে তদন্ত করে দেখা যায় সে রোহিঙ্গা নয় পরে আবার তাকে সিলেট পাঠানো হয়। টুলটিকর ইউনিয়নে এসে আবার সে একই কান্ড ঘটায়।

শাহপরান (র:) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বলেন, তাকে গতকাল আটক করা হয়েছে। আটককৃত কয়েসের পিতা তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে দাবি করেন। পরবর্তীতে তাকে তার বাবার জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open