মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ছয় মাসের নাহিয়ান

সুরমা টাইমস ডেস্ক ::সবার আর্থিক সাহায্য সহযোগিতায়
বাঁচতে পারে একটি জীবন,পূরন হতে পারে অসহায়, দরিদ্র একটি
পরিবারের স্বপ্ন। পি,এ,বান্ডিং অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি (হার্ডে ৩টি ছিদ্র হার্ডের রঘ গুলো এলোমেলো) এ রকম ১০ টি রোগে আক্রান্ত ৬ মাসের নাহিয়ানের মা-বাবা সমাজের
বিত্তবান দানশীলদের কাছে চিকিৎসার জন্য সহায়তার
হাত বাড়িয়েছেন।নাহিয়ান বরিশাল জেলার সরুপখাঁটি থানার
নেচারাবাদ গ্রামের দিনমজুর পিতা মো রবিন মিয়া এবং মাতা নাদিরা পারবিনের একমাত্র সন্তান।দরিদ্র পরিবারের প্রত্যাশা ছিল একটি মাত্র সন্তান মানুষের মত মানুষ করব।
সংসারে জ্বালাব শিক্ষার অালো।
কিন্তু মরনব্যাধি পি,এ,বান্ডিং অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি (হার্ডে ৩টি ছিদ্র হার্ডের রঘ গুলো এলোমেলো) এ রকম ১০ টি রোগে সব স্বপ্ন ভেঙ্গে
দিয়েছে নাহিয়ানের মা-বাবার। জন্মের পর পর থেকেই ছোট ৬ মাসের শিশু নাহিয়ান এ জটিল
রোগে ভুগছে।
দীর্ঘ ০৬ মাস ধরে পি,এ,বান্ডিং অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি এ রকম ১০ টি রোগে আক্রান্ত
হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে শিশুটা। দীর্ঘদিন
ঢাকা ধানমন্ডি লাবিদ মেডিকেলের
ডাক্তার মোছাঃনূরজাহান ফাতেমা সহ ধানমন্ডি মেডিকেলের দায়িত্বরত ডাক্তাররা রোগ চিহ্ন করেন এবং তাদের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন
ছিল। উন্নত চিকিৎসা ও অপারেশনের জন্য ভারত মেডিকেল হাসপাতালে যেতে বলেছে চিকিৎসারথ ডাক্তাররা। মরনব্যাধি পি,এ,বান্ডিং অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি এ রকম ১০ টি রোগে থেকে মুক্তিপেতে
চিকিৎসকরা বলেছেন কমপক্ষে তাৎক্ষনিক ভাবে ২টি অপারেশন করাতে হবে এবং টাকার পরিমান ডাক্তার মোছাঃনূরজাহান ফাতেমা,ডাঃরমেশ শর্মা প্রমুখ ডাক্তারের মতে বাংলাদেশের মুদ্রানুযায়ী প্রায় মোট ০৬ লক্ষ টাকার প্রয়োজন(পি.এ বান্ডিং ০৪লক্ষ টাকা এবং ওপেন হার্ড সার্জারি ০২ লক্ষ টাবা)। বিশাল বড় অংকের টাকা বহন
করতে পারছেন না নাহিয়ানের দরিদ্র পরিবার। দিন দিন
তার শারীরিক অবস্থা অবনতি ঘটতেছে। অর্থের
অভাবে মৃত্যুরপথ যাত্রী পি,এ,বান্ডিং অপারেশন,ওপেন হার্ড সার্জারি রোগে আক্রান্ত মাত্র ০৬ মাসের
নাহিয়ান।
সমাজের বিত্তবান ও দানশীল এবং বর্তমান সরকারের এবং বিরুধি দলের জনপ্রিয় নেত্রীত্ব দান কারী নেতা সহ সকলের কাছে
মানবিক সাহায্য কামনা করেছেন নাহিয়ান ও তার দিনমজুর
পরিবার। নাহিয়ানের পরিবারে ব্যবহৃত মোবাইল
নং-০১৭৬৩৬৩০৯৩২ (বিকাশ)

Sharing is caring!

Loading...
Open