জগন্নাথপুরে সাবেক মন্ত্রী সামাদ আজাদের নাতি সিদ্দিকুর রহমান গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে ডন গ্রুপের অন্যতম নেতা সাবেক মন্ত্রী সামাদ আজাদের নাতি সিদ্দিকুর রহমান গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় জনমনে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেই সাথে বইছে প্রতিবাদের ঝড়।

জানাগেছে, ১০ই সেপ্টেম্বর রোববার বেলা ২ টার দিকে জগন্নাথপুর সদর বাজারের মাদ্রাসা পয়েন্টে অবস্থিত নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত জাতীয় নেতা আলহাজ্ব আবদুস সামাদ আজাদের পুত্র আজিজুস সামাদ ডন গ্রুপের অন্যতম নেতা, সামাদ আজাদের নাতি, উপজেলা হাওর উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী, সমাজসেবক, ব্যবসায়ী, এলাকার জনপ্রিয় ব্যক্তি উপজেলার ভূরাখালি গ্রামের বাসিন্দা সিদ্দিকুর রহমানকে (৪৫) গ্রেফতার করে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। তাঁকে গ্রেফতার করে দ্রুত সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার ওসি হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, তার চাচাতো ভাইয়ের দায়ের করা একটি মারামারি মামলায় সিদ্দিকুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে-এলাকার জনপ্রিয় ব্যক্তি, ডন গ্রুপের অন্যতম নেতা ও সামাদ আজাদের নাতি সিদ্দিকুর রহমান গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় ডন গ্রুপের নেতাকর্মী, কৃষক-শ্রমিক, ব্যবসায়ী সহ সর্বস্তরের জনতার মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এছাড়া সন্ধ্যায় সিদ্দিকুর রহমানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে স্থানীয় মাদ্রাসা পয়েন্টে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মনাফের সভাপতিত্বে ও উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ্র’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান চৌধুরী সুফি মিয়া, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য সৈয়দ ছাব্বির আহমদ, কলকলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল হাসিম, আ.লীগ নেতা শাহিদুল ইসলাম বকুল, শাহ আবদুর রাজ্জাক, সাংবাদিক তাজ উদ্দিন আহমদ, আ.লীগ নেতা সালাহ উদ্দিন, পৌর কাউন্সিলর আবাব মিয়া, জগন্নাথপুর বাজার সেক্রেটারি জাহির উদ্দিন, বাজার বণিক সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম, আ.লীগ নেতা সাবুল মিয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক হাবিবুর রহমান, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক পীর ছালিক আহমদ ডন, যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন, আনোয়ার কোরেশী, সেলিম মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মকসুদুল হক, ফারুক আলী, আক্তার হোসেন, আক্তার হোসেন সিরাজ, জাহাঙ্গীর আলম, ছাত্রলীগ নেতা মুহিন মিয়া প্রমূখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ষড়যন্ত্র মূলক মামলায় সিদ্দিকুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, তাঁকে দিনে গ্রেফতার করলেও সন্ধ্যা পর্যন্ত সুনামগঞ্জ আদালতে মামলা সংক্রান্ত কোন কাগজ পত্র পাঠানো হয়নি। এতে প্রতীয়মান হয়, কোন প্রকার মামলা ছাড়াই কোন মহলকে খুশি করতে অতি উৎসাহী ওসি হারুনুর রশীদ চৌধুরী তাঁকে গ্রেফতার করেন। বক্তারা আল্টিমেটাম দিয়ে বলেন, আগামি কালের মধ্যে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। তা না হলে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open