মাধবপুরে বরযাত্রীবাহী নৌকা ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু , আহত ২০

নিজস্ব প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার সদরে সোনাই নদীতে নৌকা ডুবে শ্রাবন্তি(৬) এবং মুক্তা(১৩)নামে ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এতে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে।

গুরুতর আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেল ৩ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৭ই সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লম্বাবাক এলাকায় খোয়াই নদীতে নৌকা ডুবে নিহত হন ৪ যাত্রী। এ দুর্ঘটনায় এখনো অন্তত ১০ যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।

মাধবপুরের নৌকাডুবি সম্পর্কে স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার বিন্নিঘাট গ্রামের লোকজন একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা দিয়ে মাধবপুর উপজেলার মুরাদপুর গ্রামের একটি বিয়ে অনুষ্ঠানে যাবার সময় মাধবপুর সদরের সোনাই নদীর ব্রীজের কাছে পৌছালে নৌকাটি পানিতে তলিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার বিন্নিঘাট গ্রামের আব্দুল হাইয়ের মেয়ে শ্রাবন্তি ও একই গ্রামের ছালেক মিয়ার মেয়ে মুক্তা(১৩)মারা যায়। নৌকাতে থাকা লোকজন দ্রুত নামতে গিয়ে প্রায় ২০ জন আহত হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় বিজয়নগর থানার বিন্নিঘাট গ্রামের মাহমুদা (২৫) , নাইমা (১২) কে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কতব্যরত চিকিৎসক তাদের ব্রাহ্মণবড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। খবর পেয়ে মাধবপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে। মাধবপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মোঃ অলিউল্লাহ জানান, ডুবে যাওয়া নৌকাটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (মাধবপুর সার্কেল) এসএম রাজু নৌকা ডুবির সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন স্থানীয়দের সহযোগীতায় মাধবপুর থানা পুলিশ আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

Sharing is caring!

Loading...
Open